kalerkantho


পার্বতীপুরে এসএসসি পরীক্ষার উত্তরপত্রে জালিয়াতির অভিযোগ

পার্বতীপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি   

১৬ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০



দিনাজপুরের পার্বতীপুরে এসএসসি পরীক্ষায় ইংরেজি দ্বিতীয় পত্রের উত্তরপত্রে জালিয়াতির ঘটনা ঘটেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। অভিযুক্ত শিক্ষক হাসান আলী প্রামাণিক বিএমএস মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক।

জানা যায়, শিক্ষক হাসান আলী প্রামাণিক এবার ইংরেজি দ্বিতীয় পত্রের উত্তরপত্র দেখার দায়িত্ব পান। উত্তরপত্র দেখার সময় নির্ধারিত পত্র লিখনের নিচের অংশে কয়েকজন পরীক্ষার্থীর নাম-ঠিকানা দেখেন। তারা সবাই উপজেলার রোস্তমনগর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে। নাম-ঠিকানা ও মোবাইল নম্বর জানার পর শিক্ষক হাসান আলী প্রামাণিক তাঁর বিদ্যালয়ের কেরানি দিপেশ রায়ের মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট রোস্তমনগর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক প্রদীপ কুমার সাহার সঙ্গে যোগাযোগ করেন। পরে গত ১১ মার্চ প্রধান শিক্ষক প্রদীপ সাহা তাঁর বিদ্যালয়ের কয়েকজন ছাত্রীকে নিয়ে পরীক্ষক হাসান আলীর বাড়িতে যান। এদিকে একই দিন শিক্ষক হাসান আলী প্রামাণিক তাঁর বাড়িতে কয়েকজন ছাত্রীকে নিয়ে দিনভর উত্তরপত্রের শিট পরিবর্তন করেন বলে জানা যায়।

শিক্ষক হাসান আলী প্রামাণিক গত বৃহস্পতিবার বিকেলে জানান, কয়েকজন শিক্ষক এসব পরীক্ষার্থীকে নম্বর বেশি দিয়ে পাস করিয়ে দেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। তবে তিনি এ ব্যাপারে কারো সঙ্গে যোগাযোগ করেননি।

এ ব্যাপারে বিএমএস মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইব্রাহীম আলী বলেন, তিনি এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত নন। তাই এ বিষয়ে কিছুই বলতে পারবেন না। 

রোস্তমনগর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক প্রদীপ কুমার সাহা বলেন, ‘আমার বিদ্যালয় থেকে এবার ৯৮ জন শিক্ষার্থী এসএসসি পরীক্ষা দিয়েছে। তবে আমি কোনো ছাত্রীকে উত্তরপত্রে নাম-ঠিকানা লেখার পরামর্শ দিইনি।’

দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের সচিব আমিনুল হক সরকার বলেন, ‘প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বিষয়টি বোর্ড কন্ট্রোলারকে জানাবেন।’



মন্তব্য