kalerkantho


উজিরপুরে নদীভাঙনের মুখে আশ্রয়কেন্দ্র

আগৈলঝাড়া (বরিশাল) প্রতিনিধি   

১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০



বরিশালের উজিরপুরে সন্ধ্যা নদীর অব্যাহত ভাঙনে হুমকির মুখে পড়েছে কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত আশোয়ার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়-কাম-সাইক্লোন শেল্টার। এরই মধ্যে ওই আশ্রয়কেন্দ্রের একাংশের মাটি সরে গিয়ে পিলার বের হয়ে গেছে। যেকোনো সময় নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যেতে পারে পুরো শেল্টারটি। আতঙ্কে স্কুলে আসা বন্ধ করে দিয়েছে কোমলমতি শিক্ষার্থীরা।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানায়, ভাঙন আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছে উপজেলার গুঠিয়া ইউনিয়নের আশোয়ার, হানুয়া, রৈভদ্রাদি, বান্নাসহ কয়েকটি গ্রামের নদীপারের বাসিন্দারা। এরই মধ্যে নদীতে বিলীন হয়ে গেছে দাসেরহাট বাজারের যাত্রীছাউনি। ভাঙনের কারণে ওই এলাকার বাসিন্দাদের বসতবাড়ি, ফসলি জমি, মসজিদ, খেলার মাঠ ও পান বরজ নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে।  

একাধিক সূত্রে জানা যায়, প্রভাবশালী কতিপয় বালুখেকো নদীতে অবৈধ ড্রেজার বসিয়ে বালু তোলায় ভাঙন ক্রমেই বৃদ্ধি পেয়েছে। নদীভাঙন রোধে জরুরি ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য নদীপারের বাসিন্দারা প্রধানমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্ট দপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপ কামনা করেছে।  

এ ব্যাপারে গুঠিয়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন বলেন, ‘সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়-কাম-সাইক্লোন শেল্টার রক্ষার জন্য পানি উন্নয়ন বোর্ডে (পাউবো) আবেদন করেছি।’

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মাসুমা আক্তার জানান, নদীভাঙনের বিষয়টি এরই মধ্যে পাউবোর কর্মকর্তাদের জানানো হয়েছে। শিগগিরই বালুখেকোদের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। পাউবো ও স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের সমন্বয়ে ভাঙন এলাকায় বাঁধ দিয়ে সমস্যার সমাধান করা হবে।



মন্তব্য