kalerkantho


প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার পরও টনক নড়েনি ১৪

ছাতকে এক বছর ধরে ৫০ শয্যায় ঝুলছে তালা

ছাতক (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি   

১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০



৩১ শয্যাবিশিষ্ট ছাতক উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৩৬ বছর ধরে প্রায় পাঁচ লাখ লোকের চিকিৎসাসেবা চলছে। এদিকে প্রায় ১১ কোটি টাকা ব্যয়ে এক বছর আগে উদ্বোধন করা ৫০ শয্যাবিশিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নতুন ভবনে ঝুলছে তালা। নানা অনিয়ম ও প্রশাসনিক অব্যবস্থাপনার কারণে স্বাস্থ্যকেন্দ্রটি এখনো চালু করা সম্ভব হচ্ছে না বলে ভুক্তভোগীদের অভিযোগ।

দীর্ঘদিন ধরে সুনামগঞ্জের ছাতকসহ তিন উপজেলার মানুষের স্বাস্থ্যসেবা দিয়ে আসা ৩১ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালটিও এখন জরাজীর্ণ অবস্থায় পড়ে আছে। জনবল সংকটের কারণে রোগীদের প্রত্যাশিত সেবা দেওয়া যাচ্ছে না।

সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, হাসপাতালে ১৬০টি পদের বিপরীতে ৬০টি পদ শূন্য রয়েছে। জরুরি বিভাগে চিকিৎসক না থাকায় স্বাস্থ্য সহকারী দিয়ে চালানো হচ্ছে সেবাকেন্দ্রটি। হাসপাতালটির একমাত্র ইসিজি মেশিনটিও দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ। এ ছাড়া জনগুরুত্বপূর্ণ গাইনি বিভাগের কনসালট্যান্ট পদও শূন্য পড়ে আছে।

এদিকে হাসপাতালে প্রায় এক যুগ ধরে প্রধান অফিস সহকারী পদে চাকরিরত স্থানীয় আমিরুল ইসলামের দাপটের কাছে এখানকার সব কর্মকর্তা ও কর্মচারী জিম্মি বলে অভিযোগ রয়েছে।

জানা যায়, আমিরুল ইসলাম স্থানীয় হওয়ায় হাসপাতালে কয়েকজনকে নিয়ে একটি চক্র গড়ে তুলেছেন। হাসপাতালের জরুরি বিভাগে টাকা না দিলে স্বাস্থ্যসেবা মিলছে না। বিনা মূল্যের ওষুধ কিনতে হয় টাকা দিয়ে। এ ছাড়া হাসপাতালে ভর্তি রোগীদের অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্য ও নোংরা বিছানা দেওয়া হচ্ছে। ওষুধ কম্পানির কাছ থেকে মোটা অঙ্কের কমিশন নিয়ে রোগীদের ব্যবস্থাপত্রে নিম্নমানের ওষুধ লিখে দেওয়া হচ্ছে। দিন শেষে ওই চক্রটি এসব টাকা ভাগ-বাটোয়ারা করে নিয়ে যায় বলে জানা গেছে।

গত বছরের ৪ ফেব্রুয়ারি তৎকালীন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম ৫০ শয্যার নতুন ভবন উদ্বোধন করলেও তা এখনো চালু হয়নি। ভবনটি অযত্ন-অবহেলায় পড়ে আছে। এরই মধ্যে সেখানে কয়েক দফা চুরি হয়ে লাখ টাকার যন্ত্রপাতি খোয়া গেছে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছে।

এ ব্যাপারে ছাতক উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তা অভিজিৎ শর্মা জানান, মূলত জনবল সংকটের কারণেই উদ্বোধনের পরও ৫০ শয্যার হাসপাতালটি চালু করা যাচ্ছে না। তবে প্রধান অফিস সহকারী আমিরুল ইসলামের বিরুদ্ধে অভিযোগের বিষয়টি তিনি এড়িয়ে যান।

 



মন্তব্য