kalerkantho


জাতীয় পার্টির নেতাসহ পাঁচজন কারাগারে

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি   

৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০



ছিনতাই, চাঁদা দাবি ও হত্যার হুমকির অভিযোগে করা মামলায় টাঙ্গাইল জেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক মোজাম্মেল হকসহ পাঁচজনকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার তাঁরা টাঙ্গাইলের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করেন। আদালতের বিচারক আবুল মনসুর মিয়া জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাঁদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। মোজাম্মেল ছাড়া অন্যরা হলেন দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ শামসুদ্দোহা যুবরাজ, মোজাম্মেল হকের ছেলে মো. মোবিন, শহরের দিঘুলিয়া এলাকার মো. রাজু ও মো. সানি। এদিকে মোজাম্মেলের বিরুদ্ধে করা মামলা প্রত্যাহার ও তাঁর মুক্তির দাবিতে গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয় পার্টির একাংশ টাঙ্গাইল শহরে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করে। টাঙ্গাইলের আদালত পরিদর্শক আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, এ মামলায় মোজাম্মেলসহ পাঁচ আসামি হাইকোর্ট থেকে চার সপ্তাহের জামিন নেন। একই সঙ্গে আদালত তাঁদের ৩ সেপ্টেম্বর নিম্ন আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেন। তাঁরা হাইকোর্টের ওই নির্দেশ অমান্য করে ৪ সেপ্টেম্বর নিম্ন আদালতে হাজির ও জামিন আবেদন করলে আদালত হাইকোর্টের নির্দেশনা অমান্য করায় তাঁদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। প্রসঙ্গত, টাঙ্গাইল জেলা জাতীয় পার্টির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম চাকলাদার গত ১ আগস্ট টাঙ্গাইলের অতিরিক্ত মুখ্য বিচারিক হাকিম আদালতে মামলাটি করেন। মামলায় তিনি অভিযোগ করেন, মোজাম্মেল হক, সৈয়দ শামসুদ্দোহা যুবরাজসহ আসামিরা গত ২৭ জুলাই সন্ধ্যার দিকে টাঙ্গাইল কবরস্থান জামে মসজিদের কাছে তাঁকে ঘিরে ধরে। তারা জাতীয় পার্টির সম্মেলন উপলক্ষে পাঁচ লাখ টাকা দাবি করে। একই ব্যক্তিরা গত ২৯ জুলাই সকালের দিকে শহরের বিন্দুবাসিনী সরকারি বালিকা বিদ্যালয় রোডে তাঁকে (আব্দুস সালাম) গতিরোধ করে রিকশা থেকে নামায়। তারা চাকু ও পিস্তল বের করে ভয়ভীতি দেখায় এবং পাঁচ লাখ টাকা চাঁদা না দিলে হত্যা করবে বলে হুমিক দেয়।



মন্তব্য