kalerkantho


আশুলিয়ায় বকেয়ার দাবিতে শ্রমিকদের অবস্থান

অবরুদ্ধ পাঁচ কর্মকর্তা-কর্মচারী

নিজস্ব প্রতিবেদক, সাভার (ঢাকা)   

১৬ আগস্ট, ২০১৮ ০০:০০



দুই মাসের বকেয়া বেতন, ঈদ বোনাস, বন্ধ কারখানা খুলে দেওয়াসহ বিভিন্ন দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে মেসার্স বাঁধন করপোরেশন লিমিটেডের শ্রমিকরা। গতকাল বুধবার সকাল থেকে আশুলিয়ার জামগড়া এলাকায় কারখানার সামনে এ কর্মসূচি পালন করে তারা। এ সময় পাঁচ কর্মকর্তা-কর্মচারীকে অবরুদ্ধ করে রাখে শ্রমিকরা। এর আগে একই দাবিতে মঙ্গলবার বিকেলে সড়ক অবরোধ করে তাঁরা। 

জানা যায়, চলতি বছরের জুন মাসের বেতন বকেয়া পড়ায় শ্রমিকরা জুলাই মাসের মাঝামাঝি সময় কর্মবিরতি পালন করে। এ অবস্থায় কলকারখানা অধিদপ্তর, বিজিএমইএ, কারখানার মালিক ও শ্রমিকদের মধ্যে সমঝোতা চুক্তি হয়। এতে ৩০ জুলাই বেতন পরিশোধের লিখিত ঘোষণাও দেওয়া হয়। কিন্তু বেতন পরিশোধ না করে ৩১ জুলাই থেকে কারখানা অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করে মালিকপক্ষ। এর জেরে মঙ্গলবার বিকেলে শ্রমিকরা জামগড়া এলাকায় টঙ্গী-আশুলিয়া-ইপিজেড সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখায়। ফলে সড়কটিতে আধাঘণ্টা যান চলাচল বন্ধ থাকে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে শ্রমিকদের বুঝিয়ে সড়ক থেকে সরিয়ে নিলে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়। কিন্তু পরদিন বুধবার শ্রমিকরা কারখানার সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করে। এ সময় পাঁচ কর্মকর্তা-কর্মচারীকে অবরুদ্ধ করে রাখে তারা। অবরুদ্ধরা হলেন কারখানার ব্যবস্থাপনা পরিচালক তামান্না ইসাবেলা বাঁধনের উপদেষ্টা নূর উদ্দিন, কমার্শিয়াল ম্যানেজার মজিবর রহমান, স্টাফ আমজাদ হোসেন, মাহাবুব হোসেন ও গোলাম রাব্বানী।

আশুলিয়া শিল্প পুলিশ-১-এর পুলিশ সুপার ছানা শামিনুর রহমান শামীম জানান, যেকোনো অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে কারখানার ভেতর শিল্প পুলিশের অতিরিক্ত সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। এ ছাড়া বিকেলে মালিকপক্ষ ও বিজিএমইএর মধ্যে বৈঠকের পর শ্রমিকরা তাদের পাওনা বুঝে পাবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

অন্যদিকে কারখানাটির শ্রমিকদের সব পাওনা পরিশোধের জন্য মালিকপক্ষের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে বাংলাদেশ গার্মেন্টস শ্রমিক সংহতির সভাপ্রধান তাসলিমা আখ্তার ও সাধারণ সম্পাদক জুলহাসনাইন বাবু।

 

 



মন্তব্য