kalerkantho


প্রশ্নপত্র ফাঁস

কালুখালী উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তাসহ ১৫ জন কারাগারে

রাজবাড়ী প্রতিনিধি   

২৪ এপ্রিল, ২০১৮ ০০:০০



২০১৪ সালে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসে জড়িত থাকার অভিযোগে রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) মোকলেসুর আলম এবং কালুখালী উপজেলার সাবেক ও বর্তমানে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া উপজেলার সহকারী পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা অপূর্ব হালদারসহ ১৫ জনকে মাদারীপুর জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে। গ্রেপ্তারকৃত অন্যরা হলো পলাশ মণ্ডল, মনতোষ সরকার, আকরাম হোসেন, বিনয় ভক্ত, অনাদী বিশ্বাস, শশাঙ্ক বৈদ্য, তানভীর আহমেদ, মৃদুল হালদার, আশিষ বালা, মৃত্যুঞ্জয় বালা, অলোক বালা, সুরঞ্জন পাণ্ডে ও সন্তোষ হালদার। এর আগে গত শুক্রবার মাদারীপুর জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) পুলিশের সদস্যরা মাদারীপুর শহরের পাঠককান্দি এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করেন। এ সময় তাদের কাছ থেকে ল্যাপটপ, প্রিন্টার, ইলেকট্রিক ডিভাইস ও প্রশ্নপত্র জব্দ করা হয়।

কালুখালী উপজেলার উপসহকারী প্রকৌশলী শরীফুল ইসলাম জানান, দিনাজপুরের বাসিন্দা ও কালুখালী উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) মোকলেসুর আলম গত রবিবার ও গতকাল সোমবার অফিস করেননি। তাঁর মোবাইল ফোনটিও বন্ধ রয়েছে। তবে তিনি কোথায় কি অবস্থায় রয়েছেন, তা তিনি জানেন না।

কালুখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তোফায়েল আহম্মেদ জানান, তাঁরা বিষয়টি এরই মধ্যে পত্রের মাধ্যমে জেলা প্রশাসকসহ সংশ্লিষ্টদের জানিয়েছেন।

রাজবাড়ী জেলা প্রশাসক মো. শওকত আলী বলেন, ‘মাদারীপুরে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেপ্তার হওয়ায় বিষয়টি গুরুতর। তাদের বিষয়টি সরকারকে জানানো প্রয়োজন। তাদের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন জমা দেওয়ার জন্য কালুখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তোফায়েল আহম্মেদকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’

 


মন্তব্য