kalerkantho


পানের দাম আকাশছোঁয়া

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি   

১৪ মার্চ, ২০১৮ ০০:০০



হবিগঞ্জে পানের দাম এখন আকাশছোঁয়া। বৃষ্টির অভাবে নতুন কুঁড়ি না আসায় পানের উৎপাদন কমে গেছে। শহরের বিভিন্ন দোকানে বর্তমানে ৫০ থেকে তিন শ টাকা কান্তা (১৪৪টি পানে এক কান্তা) হিসেবে পান বিক্রি হচ্ছে। অথচ মৌসুমে এই পান বিক্রি হয় ১০ থেকে ১৫ টাকায়। উচ্চমূল্যের কারণে বেকায়দায় আছেন পানপ্রেমীরা। জানা যায়, বাহুবল উপজেলার আলিয়াছড়ায় পাহাড়ি ভূমির ওপর খাসিয়াপুঞ্জিতে জেলার মধ্যে সবচেয়ে বেশি পান উৎপাদিত হয়। পুঞ্জির প্রধান বা মন্ত্রী উটিয়াম টমপেয়ার জানান, পান বিক্রি হয় কুড়ি হিসেবে। ১২টি পানে এক সলি। ১৪৪টি পানে এক কান্তা আর ২০ কান্তায় এক কুড়ি। বর্তমানে এক কুড়ি পান বিক্রি হচ্ছে তিন থেকে চার হাজার টাকায়। মৌসুমে বিক্রি হয় চার শ থেকে পাঁচ শ টাকায়। মৌসুমে একজন কৃষক ২০-৩০ কুড়ি পান তুললেও এখন দুই কুড়ির বেশি কেউ তুলতে পারেন না। জেলা শহরের চৌধুরীবাজারের পান ব্যবসায়ী আব্দুর রহিম জানান, তাঁর দোকানে ৮০ থেকে তিন শ টাকা পর্যন্ত পানের কান্তা বিক্রি হয়। তবে ভালো পান পাওয়াটাই এখন মুশকিল।

 



মন্তব্য