kalerkantho


মধুসূদনের নামে বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের দাবিতে মানববন্ধন

কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি   

২০ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



যশোরের সাগরদাড়িতে মধুসূদন সংস্কৃতি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার দাবিতে গতকাল শুক্রবার বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয় বাস্তবায়ন কমিটির উদ্যোগে কেশবপুরে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। শহরের শহীদ মুক্তিযোদ্ধা দৌলত বিশ্বাস চত্বরে মানববন্ধনে বক্তৃতা করেন মধুসূদন সংস্কৃতি বিশ্ববিদ্যালয় বাস্তবায়ন কমিটির আহ্বায়ক হারুণ অর রশীদ, সদস্যসচিব কবি খসরু পারভেজ, অ্যাডভোকেট আবু বকর সিদ্দিকী, কেশবপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি আশরাফ-উজ-জামান খান, সিপিবির কেশবপুর শাখার সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান নান্নু, কবি মকবুল মাহফুজ, স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ওয়ার্ডের নির্বাহী পরিচালক সৈয়দ আকমল আলী, প্রভাষক কানাই লাল ভট্টাচার্য্য, কবি বদরু খালেকুজ্জামান, শিক্ষক স্বপন মণ্ডল প্রমুখ। তাঁরা সাগরদাড়িতে মহাকবি মাইকেল মধুসূদন দত্তের নামে মধুসূদন সংস্কৃতি বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার জন্য সরকারের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

মধুসূদন সংস্কৃতি বিশ্ববিদ্যালয় বাস্তবায়ন কমিটির সদস্যসচিব কবি খসরু পারভেজ জানান, সাগরদাড়িতে মধুসূদন সংস্কৃতি বিশ্ববিদ্যালয় বাস্তবায়নের দাবিতে আজ মধু মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেনকে স্মারকলিপি দেওয়া হবে।

 

সাগরদাড়িতে মধু মেলা আজ

বাংলা ভাষায় অমিত্রাক্ষর ছন্দের প্রবর্তক মহাকবি মাইকেল মধুসূদন দত্তের ১৯৪তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে কবির জন্মভিটা সাগরদাড়িতে সপ্তাহব্যাপী মধু মেলা শুরু হচ্ছে আজ। সাগরদাড়ির মধুমঞ্চে বিকেলে এ মেলার উদ্বোধন করবেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন। মেলা উপলক্ষে যশোরের কেশবপুর সদর থেকে সাগরদাড়ি পর্যন্ত সড়কের বিভিন্ন স্থানে তোরণ তৈরিসহ ব্যানার, ফেস্টুন টানানো হয়েছে। গতকাল শুক্রবার সাগরদাড়ির মেলার মাঠ ঘুরে দেখা গেছে, চুড়ি, কম্বল, ঝিনুকের তৈরি অলংকারের স্টলসহ কাঠের তৈরি খাট-পালংকের স্টলও বসানো হয়েছে। এ ছাড়া বিভিন্ন ভাজা ও মিষ্টির দোকান বসেছে। বাহারি পানের খিলি বিক্রেতারাও সারি সারি করে দোকান সাজিয়েছে।

যশোর জেলা প্রশাসনের আয়োজনে ও সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের পৃষ্ঠপোষকতায় এ মেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। মেলা উপলক্ষে এরই মধ্যে কবির স্মৃতিবিজড়িত কপোতাক্ষ নদ পাড়, জমিদার বাড়ির আম্রকানন, বুড়োকাঠ বাদাম গাছতলা, বিদায় ঘাটসহ মধুপল্লী বর্ণিল সাজে সাজানো হয়েছে।

সাগরদাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুল ইসলাম মুক্ত জানান, মেলা উপলক্ষে এলাকাবাসীর মধ্যে উৎসাহ-উদ্দীপনা দেখা দিয়েছে।



মন্তব্য