kalerkantho


জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়

শ্রদ্ধা-ভালোবাসায় নাট্যাচার্যকে স্মরণ

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি   

১৫ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



দশম প্রয়াণ দিবসে গতকাল রবিবার (১৪ জানুয়ারি) শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় স্মরণ করা হয়েছে নাট্যাচার্য সেলিম আল দীনকে। ‘নেই... আছেন তিনি, থাকবেন’—এ প্রতিপাদ্যে গতকাল সকাল সাড়ে ১০টার দিকে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ভবন (পুরনো) থেকে স্মরণযাত্রা বের হয়ে সেলিম আল দীনের সমাধিস্থলে গিয়ে শেষ হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগ যাত্রাটির আয়োজন করে। এতে উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম, নাটক ও নাট্যতত্ত্ব ছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, দেশের সংস্কৃতি অঙ্গনের ব্যক্তিরাসহ সেলিম আল দীনের আত্মীয়স্বজন অংশ নেন।

শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদের পাশে বাংলা নাটকের প্রবাদ পুরুষের সমাধিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি দেন উপাচার্য ড. ফারজানা। এ সময় তিনি বলেন, ‘সেলিম আল দীন ক্ষণজন্মা পুরুষ। তাঁর সৃষ্টিকর্ম এবং স্মৃতি সংরক্ষণে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন অবদান রাখতে পারলে খুশি হবে। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সেলিম আল দীনের সৃষ্টিকর্ম প্রসারের যেকোনো উদ্যোগকে স্বাগত জানাবে।’

বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ছাড়াও নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগ, বাংলাদেশ গ্রাম থিয়েটার, ঢাকা থিয়েটার, সেলিম আল দীন ফাউন্ডেশন, তালুকনগর থিয়েটার, স্বপ্নদল ঢাকা, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট, জাহাঙ্গীরনগর থিয়েটার, পুতুলনাট্য গবেষণা কেন্দ্র, ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র, নাটক সংসদ, কলমা থিয়েটার, ভোর হলো, শহীদ টিটু থিয়েটারসহ অন্য সংগঠন সমাধিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি জানায়। এ ছাড়া প্রয়াণ দিবস উপলক্ষে আলোচনাসভা ও নাটক মঞ্চস্থ হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ১৯৪৯ সালের ১৮ আগস্ট ফেনীর সোনাগাজীতে জন্ম নেন সেলিম আল দীন। ১৯৭৪ সালে তিনি জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগে প্রভাষক হিসেবে যোগ দেন। তাঁর হাত ধরেই ১৯৮৬ সালে বিশ্ববিদ্যালয়ে নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগের যাত্রা শুরু। বিভাগটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ছিলেন তিনি।২০০৮ সালের ১৪ জানুয়ারি রাজধানীর একটি হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন ঢাকা থিয়েটারের এই প্রতিষ্ঠাতা সদস্য।



মন্তব্য