kalerkantho


আশুলিয়ায় পোশাককর্মীকে ধর্ষণের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক, সাভার (ঢাকা)   

১৪ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



আশুলিয়ায় তৈরি পোশাক কারখানার এক কর্মীকে (কিশোরী) গণধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত ওই কিশোরীর কথিত প্রেমিককে আটক করেছে পুলিশ। নির্যাতিতাকে শারীরিক পরীক্ষা ও চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে পাঠানো হয়েছে।

আটক রাসেল মিয়া (৩২) বগুড়ার সারিয়াকান্দি থানার কামালপুর গ্রামের আলম মিয়ার ছেলে।  সেও একটি তৈরি পোশাক কারখানার শ্রমিক। ওই কিশোরীর বসবাস ভাদাইল এলাকায়।

পুলিশ জানায়, শুক্রবার রাত ১০টার দিকে ওই কিশোরীকে (১৫) নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কের জিরানী এলাকায় সংজ্ঞাহীন অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা। পরে তাকে ঢামেক হাসপাতালে পাঠানো হয়। তার মা আশুলিয়া থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে একটি অভিযোগ করেছেন। রাসেল মিয়ার সঙ্গে কিশোরীটির প্রেমের সম্পর্ক ছিল বলে জানা গেছে।

কিশোরীটির এক সহকর্মী ও প্রতিবেশীরা জানায়, গাজীপুরের চন্দ্রা এলাকায় একটি তৈরি পোশাক কারখানায় কর্মরত রাসেল মিয়ার সঙ্গে ওই কিশোরীর প্রেমের সম্পর্ক ছিল। শুক্রবার বিকেল ৩টার দিকে কিশোরী কর্মস্থলে বেতন তোলার কথা বলে বাসা থেকে বের হয়। রাতে বাড়ি ফেরার পথে সে ধর্ষণের শিকার হয়।

আশুলিয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মোমিনুল ইসলাম বলেন, পূর্বপরিচয়ের সূত্র ধরে রাতে রাসেলসহ কয়েকজন ওই পোশাক শ্রমিককে জিরানী এলাকার একটি বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে তারা কয়েকজন তাকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।



মন্তব্য