kalerkantho


নোয়াখালীতে ছাত্রলীগকর্মী

মাধবপুরে স্কুলছাত্র খুন চান্দিনায় চাচিকে হত্যা

প্রিয় দেশ ডেস্ক   

১১ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



মাধবপুরে স্কুলছাত্র খুন চান্দিনায় চাচিকে হত্যা

প্রতীকী ছবি

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে এক ছাত্রলীগকর্মীকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। হবিগঞ্জের মাধবপুরে ডোবা থেকে অপহৃত স্কুলছাত্রের (৭) লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। কুমিল্লার চান্দিনায় চাচিকে কুপিয়ে হত্যা করেছে ভাতিজা। এদিকে পিরোজপুরের নাজিরপুরে এক স্কুলছাত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। বিস্তারিত নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে :

নোয়াখালী : নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজেলায় শাকিল (২০) নামের এক ছাত্রলীগকর্মীকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে উপজেলার দেওটি ইউনিয়নের বাজারে এ ঘটনা ঘটে। নিহত শাকিল দেওটি ইউনিয়নের আমিরাবাদ গ্রামের আবুল হাশেমের ছেলে। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত অভিযোগে দুজনকে আটক করেছে পুলিশ। আটককৃতরা হলো রাসেল ও আরমান। নিহতের বন্ধু জাহিদ আলম অভি জানান, মঙ্গলবার সারা দিন স্থানীয় একটি নুরানী মাদরাসায় ভর্তির মাইকিং করছিল শাকিল। রাতে মাইকিং করে যাওয়ার সময় দেওটি বাজারে চা নাশতা খেতে নামেন শাকিল। এ সময় স্থানীয় লিটন, আজগরসহ সাত-আটজন তাঁকে গুলি করে। এতে তিনি গুরুতর আহত হন। স্থানীয়রা তাঁকে উদ্ধার করে প্রথমে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে তাঁর অবস্থার অবনতি হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে ঢাকায় রেফার করেন। ঢাকায় নেওয়ার পথে চৌমুহনী নামক স্থানে তাঁর মৃত্যু হয়। নোয়াখালী জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এ  কে এম জহিরুল ইসলাম জানান, এ হত্যার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে দুজনকে আটক করা হয়েছে। হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত অস্ত্রও জব্দ করা হয়েছে।

কুমিল্লা : চান্দিনায় শিল্পী রানী দাস (৪০) নামের আপন চাচিকে কুপিয়ে খুন করেছেন ভাতিজা। এ সময় ভাতিজার ধারালো দায়ের আঘাতে কাকা রঞ্জিত দাসও গুরুতর আহত হন। বুধবার সকালে উপজেলার মহিচাইল গ্রামের বাড়ইপাড়া দাস বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ঘাতক সমীর দাস ও তাঁর স্ত্রী রূপালী দাসকে স্থানীয় জনতা আটক করে পুলিশের হাতে দিয়েছে। আটক সমীর দাস ক্ষিতিস দাসের ছেলে। তিন সন্তানের মা নিহত শিল্পী রানী দাস ওই গ্রামের রঞ্জিত দাসের স্ত্রী এবং আহত স্বামী রঞ্জিত দাস বনমালী চন্দ্র দাসের ছেলে।

প্রত্যক্ষদর্শী নিতাই দাস জানান, দীর্ঘদিন ধরে দুই পরিবারের মধ্যে জমি নিয়ে বিরোধ চলছিল। বুধবার সকালে ওই জমি নিয়েই কথা-কাটাকাটির একপর্যায়ে সংঘর্ষ সৃষ্টি হয়। এ সময় সমীর দাস ঘর থেকে দা বের করে রঞ্জিত ও তাঁর স্ত্রী শিল্পীকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করেন। স্থানীয় লোকজন তাঁদের উদ্ধার করে চান্দিনা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক শিল্পীকে মৃত ঘোষণা করেন এবং গুরুতর আহত রঞ্জিতকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ ও পরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। চান্দিনা থানার এসআই স্বপন কুমার সরকার জানান, নিহতের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। স্থানীয় জনতা ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

হবিগঞ্জ : হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার বাঘাসুরা ইউনিয়নের শিবজয়নগর এলাকার একটি ডোবা থেকে অপহৃত স্কুলছাত্র শাহ পরানের (৭) লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সে সাতপাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণির ছাত্র ও শিবজয়নগরের মো. সাবাস মিয়ার ছেলে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় থানার এসআই মমিনুল ইসলাম লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হবিগঞ্জ মর্গে পাঠায়। সেই সঙ্গে অপহরণে জড়িত থাকার অভিযোগে দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। পুলিশ ও নিহতের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ৬ জানুয়ারি সন্ধ্যায় সাতপাড়িয়ার একটি দোকানের সামনে থেকে শাহ পরানকে অপহরণ করে নিয়ে যায় একই গ্রামের তাউস মিয়ার ছেলে জালাল মিয়া ও তার সহযোগী মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলার চাঁন গ্রাম ওরফে আকুল নগরের মোহাম্মদ আলীর ছেলে রাসেল মিয়া ওরফে কোপা রাসেল। ওই দিন সন্ধ্যায় শাহ পরান বাড়ি না ফিরলে স্বজনরা তাকে খোঁজাখুঁজি করতে থাকে। রাতে জালাল ও রাসেল মোবাইল ফোনে শাহ পরানের মুক্তির জন্য দুই লাখ টাকা দাবি করে। ৭ জানুয়ারি শাহপরানের বাবা এ ঘটনায় থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। জিডিতে উল্লিখিত মোবাইল ফোন নম্বর ট্রেকিং করে মঙ্গলবার ভোরে জালাল মিয়া ও রাসেল মিয়াকে বড়লেখা থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় শিবজয়নগরের একটি ডোবা থেকে শাহ পরানের লাশ উদ্ধার করা হয়।

পিরোজপুর : পিরোজপুরের নাজিরপুরে স্বর্ণা আক্তার (১৪) নামের এক স্কুলছাত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। গত মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলার মালিখালী ইউনিয়নের উত্তর ঝনঝনিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। স্বর্ণা গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ার বাঁশবাড়িয়া বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী এবং কোটালীপাড়া উপজেলার হিজলবাড়ী গ্রামের লেবাননপ্রবাসী শাহ আলমের মেয়ে।

নাজিরপুর থানার ওসি মো. হাবিবুর রহমান জানান, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য পিরোজপুর সদর হাসপাতালে পাঠানো হবে। তদন্তের প্রতিবেদন পাওয়ার পর মৃত্যুর সঠিক কারণ বলা যাবে।

 



মন্তব্য