kalerkantho


নতুন বইয়ের রঙিন উৎসব

প্রিয় দেশ ডেস্ক   

২ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



নতুন বইয়ের রঙিন উৎসব

নতুন বছরের প্রথম দিনে নতুন বই। তাই তাদের বাঁধভাঙা উল্লাস। ছবিটি গতকাল রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলার কালাআমের ডাঙ্গা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে তোলা। ছবি : কালের কণ্ঠ

বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে সারা দেশে খুদে শিক্ষার্থীদের হাতে বই তুলে দেওয়া হয়েছে। সোমবার বছরের প্রথম দিনে এসব সরকারি বই বিতরণ করা হয়। বিস্তারিত কালের কণ্ঠের নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে :    

গোপালগঞ্জ : জেলা শহরের এস এম মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে বই উৎসবের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মোখলেসুর রহমান সরকার। জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. মাসুদ ভূঁইয়ার সভাপতিত্বে সভায় সহকারী জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা সুকুমার মিত্র, স্কুল কমিটির সভাপতি রফিকুল ইসলাম মিটু, প্রধান শিক্ষিকা সুরাইয়া পারভিন, শিক্ষক ইদ্রিস আলী কাজী প্রমুখ বক্তব্য দেন। পরে অতিথিরা শিশু শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেন।

ফরিদপুর : ফরিদপুর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় চত্বরে বই উৎসবের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক উম্মে সালমা তানজিয়া। এ সময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) শামসুল আলম, জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা পরিমল চন্দ্র মণ্ডল, প্রধান শিক্ষক আজিজা খানম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

টাঙ্গাইল : টাঙ্গাইলের ১২টি উপজেলার সব বিদ্যালয় ও মাদরাসায় শিক্ষার্থীদের হাতে ৯২ লাখ নতুন বই তুলে দেওয়া হয়েছে। সকালে টাঙ্গাইল শহরের মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ উৎসবের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক খান মো. নুরুল আমিন। জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুল আজিজের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন টাঙ্গাইল সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান খোরশেদ আলম, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জিনাত জাহান ও জেলা সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা কাজী গোলম আহাদ।

পঞ্চগড় : পঞ্চগড়-২ নম্বর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পঞ্চগড় সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও পঞ্চগড় বিপি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেন জেলা প্রশাসক অমল কৃষ্ণ মণ্ডল। এ সময় অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট অতীন কুমার কুণ্ডু, জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা শঙ্কর কুমার ঘোষ ও জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা হারুনর রশিদ উপস্থিত ছিলেন। এবার জেলায় প্রাথমিক, এবতেদায়ি, মাধ্যমিক, দাখিল, ভোকেশনাল ও কারিগরি ট্রেড পর্যায়ে প্রায় তিন লাখ শিক্ষার্থীর হাতে ২১ লাখ ৮০ হাজার ১১৫ পিস নতুন বই বিতরণ করা হয়।

কেশবপুর (যশোর) : কেশবপুরে স্থানীয় পাবলিক ময়দানে বই উৎসবের উদ্বোধন করেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ইসমাত আরা সাদেক। এ সময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মিজানূর রহমান, পৌর মেয়র রফিকুল ইসলাম মোড়ল, সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. কবীর হোসেন, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. রবিউল ইসলাম, উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. আকবর হোসেন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ রানা, নাসিমা সাদেক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

নাটোর : নাটোর শহরের সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ে বই উৎসবের উদ্বোধন করা হয়। এ সময় জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সাজেদুর রহমান খান, পুলিশ সুপার বিপ্লব বিজয় তালুকদার, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট রাজ্জাকুল ইসলাম, জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা রমজান আলী আকন্দ, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা এ কে এম আমিরুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন। জেলার ৯ লাখ ৫০ হাজার ১০০ সেট সরকারি ও এনজিও পরিচালিত প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মধ্যে এবং মাধ্যমিক, এবতেদায়ি ও ভকেশনালের শিক্ষার্থীর মধ্যে ২৯ লাখ ৩০ হাজার ৪৪১ সেট বই বিতরণ করা হবে।

যশোর : সোহান নতুন বই পেয়ে তা বুকে জড়িয়ে ধরল। তার মুখের হাসি শেষ হয় না। একবার বইয়ের গন্ধও শুকে দেখল। যশোর সদর উপজেলার চাঁচড়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র সোহানের বাবা রূপকুমার বর্মণ বিদেশে চাকরি করেন। গতকাল সোমবার নতুন বই হাতে পেয়ে স্কুল মাঠে দাঁড়িয়ে সোহান হাসতে হাসতে বলল, ‘বালিশের নিচে নতুন বই নিয়ে ঘুমাব। বাড়ি গিয়ে আগে বইয়ের মলাট দেব। নতুন বই পেয়ে আমি খুবই খুশি।’ যশোর শহর থেকে ছয় কিলোমিটার দূরে চাঁচড়া বর্মণ পাড়ার ওই স্কুলে গিয়ে দেখা যায় বই উৎসবে মাতোয়ারা শিক্ষার্থীরা। মাইকে নাম ডেকে শিক্ষার্থীদের হাতে বই তুলে দেওয়া হচ্ছে।

ঝালকাঠি : ঝালকাঠি সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয় চত্বরে উৎসবের উদ্বোধন করেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু। ঝালকাঠি জেলার প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরের দুই লাখ শিক্ষার্থীর হাতে নতুন বই তুলে দেওয়া হয়। জেলা প্রশাসক মো. হামিদুল হকের সভাপতিত্বে উৎসবে উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সরদার মো. শাহ আলম, পুলিশ সুপার মো. জোবায়েদুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক খান সাইফুল্লাহ পনির, জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা প্রাণ গোপাল দে, জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. ছাইয়াদুজ্জামান ও সদর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা এ কে এম হারুন অর রশীদ।

রাজবাড়ী : রাজবাড়ী সরকারি টাউন মক্তব প্রাথমিক বিদ্যালয় ও রাজবাড়ী সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে পৃথকভাবে বই উৎসবের উদ্বোধন করা হয়েছে। অনুষ্ঠানগুলোতে রাজবাড়ী-১ আসনের সংসদ সদস্য কাজী কেরামত আলী, সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য কামরুন নাহার চৌধুরী, জেলা প্রশাসক মো. শওকত আলী, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফকির আব্দুল জব্বার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাকিব খান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (আইসিটি ও শিক্ষা) সাদেকুর রহমান, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার আসাদুজ্জামানসহ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর শিক্ষকরা উপস্থিত ছিলেন।

হবিগঞ্জ : হবিগঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে বিতরণী উৎসবের উদ্বোধন করেন হবিগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট মো. আবু জাহির। এ সময় জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা অনীল কৃষ্ণ মজুমদার, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নুর ইসলামসহ সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি উপস্থিত ছিলেন।

পিরোজপুর : স্বরূপকাঠিতে বছরের প্রথম দিনেই ল্যাপটপ ও নতুন বই হাতে পেল শিক্ষার্থীরা। সকালে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে উপজেলার ৭৩টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ল্যাপটপ ও বই বিতরণ করেন পিরোজপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য এ কে এম এ আউয়াল। এ সময় ইউএনও আবু সাঈদের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন সংসদ সদস্য এ কে এম এ আউয়াল, উপজেলা চেয়ারম্যান মো. ওয়াহিদুজ্জামান, পৌর মেয়র গোলাম কবির, ভাইস চেয়ারম্যান লাভলু আহম্মেদ, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. জহিরুল ইসলাম ও প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা দিলদার নাহার প্রমুখ।

চাঁদপুর : শহরের হাসান আলী স্কুল মাঠে বই উৎসবের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক আব্দুস সবুর মণ্ডল। অনুষ্ঠানে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান, জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ইউনুস ফারুকী, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা খোরশেদ আলম, ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে জেলার ফরিদগঞ্জে বই উৎসবের উদ্বোধন করেন চাঁদপুর-৪ আসনের সংসদ সদস্য ড. মোহাম্মদ শামছুল হক ভূঁইয়া। এ সময় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবু সাহেদ সরকার, ভাইস চেয়ারম্যান ওহিদুর রহমান রানা, থানার ওসি মো. শাহ আলম উপস্থিত ছিলেন। চাঁদপুরে এবার প্রাথমিক, এবতেদায়ি, মাদরাসা এবং মাধ্যমিকে প্রায় ৬০ লাখ বই বিতরণ করা হয়।

নীলফামারী : নীলফামারীতে উৎসবের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ খালেদ রহীম। সকাল ১০টায় নীলফামারী সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় চত্ব্বরে, সকাল ১১টায় নীলফামারী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় এবং দুপুরে নীলফামারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় চত্বরে বই বিতরণ অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন তিনি। এসব অনুষ্ঠানে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীন, নীলফামারী পৌরসভার মেয়র দেওয়ান কামাল আহমেদ, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুজার রহমান, ভাইস চেয়ারম্যান আরিফা সুলতানা, জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ওসমান গণি, নীলফামারী ছমির উদ্দিন স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ মেজবাহুল হক প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। জেলায় এবার বই বিতরণ করা হয়েছে আট লাখ ২৬ হাজার ৯০৬ শিক্ষার্থীর মধ্যে।

বাগেরহাট : বাগেরহাট শহরের সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বই উৎসবের উদ্বোধন করেন বাগেরহাট-৪ আসনের সংসদ সদস্য ডা. মোজাম্মেল হোসেন। জেলা প্রশাসক তপন কুমার বিশ্বাস বাগেরহাট সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে বই উৎসবের উদ্বোধন করেন। বাগেরহাটে এবার সরকারি প্রাথমিক, মাধ্যমিক, দাখিল ও ভোকেশনালের শিক্ষার্থীদের মধ্যে প্রায় ৩২ লাখ বই শিক্ষার্থীদের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে।

বিভিন্ন বিদ্যালয়ে বই বিতরণ উৎসবে উপস্থিত ছিলেন বাগেরহাটের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (আইসিটি) মো. শাহীন হোসেন, শিক্ষাবিদ অধ্যাপক মো. মোজাফফ হোসেন, জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. কামরুজ্জামান প্রমুখ।

কুড়িগ্রাম : জেলা প্রশাসক আবু ছালেহ মোহাম্মদ ফেরদৌস খান কিশলয় আদর্শ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে বই উৎসবের উদ্বোধন করেন। এ সময় জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা খন্দকার আলাউদ্দিন আল আজাদ, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা স্বপন কুমার রায় চৌধুরী, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আমিন আল পারভেজ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।


মন্তব্য