kalerkantho


তাড়াশে চলছে পুকুর খননের মহোৎসব

তাড়াশ (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি   

১ জানুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০



সিরাজগঞ্জের তাড়াশে পুকুর খননের মহোৎসব; কিন্তু প্রশাসন তা দেখেও যেন দেখছে না। এ সুযোগে পুকুর খননের হার বেড়েই চলেছে।

জানা যায়, অসাধু ব্যবসায়ীরা পুকুর খননের নামে আশপাশের এলাকার ফসলি জমিতে মাটি ফেলে ভরাট করে বসতি তৈরি করে দিচ্ছে। যেখানে-সেখানে পুকুর আর বসতভিটা বানানোয় পানি চলাচল বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। এতে পানি চলাচল বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। ফলে সৃষ্টি হচ্ছে জলাবদ্ধতার। ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন কৃষকরা। এ দৃশ্য উপজেলাজুড়েই। মাটি বিক্রি করে অল্প সময়ে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিতে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী প্রশাসনের সহযোগিতায় পুকুর খনন করে যাচ্ছে বলে অভিযোগ।

সরেজমিনে দেখা গেছে, উপজেলার আটটি ইউনিয়নের প্রায় সব কটিতেই অবাধে পুকুর খনন চলছে। বিশেষ করে তাড়াশ সদরের পশ্চিম বাঁধের সামনে, কাউরাইল গ্রামে এবং বারুহাস ইউনিয়নের বিনোদপুর বাজারের পশ্চিম পাশে।

কাউরাইলের আব্দুল হাকিম বলেন, ‘জলাবদ্ধতার কারণে পুকুর খনন করছি। প্রশাসনের কারো সঙ্গে যোগাযোগ না করেই পুকুর খনন করছি।’

এ ব্যাপারে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম বলেন, অপরিকল্পিতভাবে পুকুর খনন করায় জলাবদ্ধতা সৃষ্টির ফলে ফসল ফলাতে কৃষকের ব্যাপক সমস্যা হচ্ছে। শ্রেণি পরিবর্তন করতে চাইলে সরকারি অনুমতি লাগবে। কেউ যদি অনুমতি না নিয়ে থাকে তাহলে তার বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।



মন্তব্য