kalerkantho


নারায়ণগঞ্জের স্কুলে সভাপতির গ্যারেজ

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি   

১৩ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



নারায়ণগঞ্জের স্কুলে সভাপতির গ্যারেজ

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লার মাসদাইরের বেগম রোকেয়া খন্দকার পৌর উচ্চ বিদ্যালয়কে গাড়ির গ্যারেজ হিসেবে ব্যবহার করছেন স্কুলটির পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি। সন্ধ্যার পর থেকেই স্কুল কম্পাউন্ড ব্যবহৃত হচ্ছে গণপরিবহনের গাড়ি রাখার স্থান হিসেবে। শুধু তা-ই নয়, ওই সব গাড়ির চালক ও হেলপারদের অনেকেই সেখানে রাতও কাটাচ্ছে। স্থানীয়দের অনেকে এ বিষয়ে মৌখিকভাবে আপত্তি জানালেও স্কুল কমিটির সভাপতি তাতে গুরুত্ব দিচ্ছেন না।

একাধিক সূত্র জানায়, মাসদাইরের বেগম রোকেয়া খন্দকার পৌর উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি পদে রয়েছেন হাবিবুর রহমান হাবিব ওরফে ডিশ হাবিব। যিনি নাসিকের ১৩ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ও স্থানীয় ডিশ ব্যবসায়ী। প্রতি রাতে ওই স্কুলের মাঠে জড়ো হতে থাকে নারায়ণগঞ্জ শহরের চাষাঢ়া থেকে মুন্সীগঞ্জের মুক্তারপুর পর্যন্ত চলাচলকারী লেগুনাগুলো (হিউম্যান হলার)।

এগুলোর মালিক হাবিবুর রহমান হাবিব ওরফে ডিশ হাবিব ও তাঁর লোকজন। স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতি হওয়ার সুবাদে স্কুলের মাঠকে গাড়ি রাখার গ্যারেজে পরিণত করেছেন তিনি। তা ছাড়া প্রায়ই গভীর রাত পর্যন্ত স্কুলটির দুটি কক্ষে আড্ডা দেওয়ার পাশাপাশি লেগুনার চালক-হেলপার দুই-একজন নিয়মিত রাতযাপনও করে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে স্কুলটির প্রধান শিক্ষক সুলতানা বেগম রত্না জানান, স্কুল কম্পাউন্ডে যে গাড়িগুলো থাকে, সেগুলো স্কুল কমিটির সভাপতির। এ বিষয়ে অনুমতি দেওয়া হয়েছে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিষয়টি সভাপতি সাহেব ভালো বলতে পারবেন।

এ বিষয়ে স্কুলটির ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি হাবিবুর রহমান হাবিব জানান, সব গাড়ি তাঁর নয়। এলাকাবাসীর গাড়ি রাখার কোনো নির্দিষ্ট গ্যারেজ না থাকায় শুধু রাতের বেলায় এখানে রাখা হয়। ভোরেই বের করে ফেলা হয়। তাতে স্কুলটির পরিবেশের কোনো ক্ষতি হচ্ছে না। তবে রাতে এখানে কেউ থাকে না বলে দাবি করেন তিনি।

নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মো. রেজাউল বারী জানান, স্কুলের ভেতরে গাড়ি রাখাটা ঠিক নয়। তিনি এ বিষয়ে খোঁজখবর নেবেন।



মন্তব্য