kalerkantho


কালিয়াকৈরে কসমেটিকস কারখানায় আগুনে দগ্ধ ১১

কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি   

১৩ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



গাজীপুরের কালিয়াকৈরের জামালপুর এলাকায় এফএস কসমেটিকস লিমিটেড  কারখানায় গতকাল মঙ্গলবার বিকেল ৫টার দিকে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। এতে কারখানার ১১ শ্রমিক অগ্নিদগ্ধ হয়েছে। অগ্নিদগ্ধদের মধ্যে গুরুতর অবস্থায় শ্রমিক রহিম ও তাঁর স্ত্রী নাজনীন, বোন আসমা খাতুন, শেফালী ও কারখানার ম্যানেজার জাকির হোসেনকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এ ছাড়া কারখানার অন্তত ১০ শ্রমিক কমবেশি আহত হয়েছে। এ ঘটনায় গাজীপুর জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে  কালিয়াকৈর নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলামকে প্রধান করে পাঁচ সদস্যবিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।  তদন্ত কমিটিকে আগামী সাত দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

এলাকাবাসী, ফায়ার সার্ভিস, পুলিশ সূত্রে জানা যায়, প্রায় ৮-৯ বছর আগে কালিয়াকৈরের মধ্যপাড়া ইউনিয়নের জামালপুর এলাকায় এফএস কসমেটিকস লিমিটেড কারখানায় মেহেদি, সেভিং ফোম, সেভিং ক্রিম, কলপসহ বিভিন্ন প্রকার কসমেটিকস তৈরি করা হয়। এ কারখানায় প্রায় ৩৫ জন শ্রমিক কাজ করে। গতকাল মঙ্গলবার বিকেল ৫টার দিকে উত্পাদন কাজ চলাকালে হঠাত্ বিকট শব্দে কারখানার একটি গ্যাস সিলিন্ডারের বিস্ফোরণ ঘটে। এতে একতলা ভবনের এ কারখানায় আগুন ধরে যায় এবং কারখানায় থাকা কেমিক্যাল ছড়িয়ে পড়ে। মুহূর্তেই আগুন পুরো কারখানায় ছড়িয়ে পড়লে আরো কয়েকটি সিলিন্ডারের বিস্ফোরণ ঘটে। এতে আগুন ভয়াবহ আকার ধারণ করে। এ সময় কারখানার ম্যানেজার জাকির হোসেন (৩৮), শ্রমিক নাজনীন (২৬) ও তাঁর স্বামী আবদুর রহিম (৩২)সহ অন্তত ১১ জন ভেতরে আটকা পড়ে দগ্ধ হন। এলাকাবাসী দগ্ধদের উদ্ধার করে বিভিন্ন হাসপাতাল ও ক্লিনিকে পাঠায়। এঁদের মধ্যে গুরুতর অবস্থায় পাঁচজনকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। খবর পেয়ে কালিয়াকৈর ও জয়দেবপুর ফায়ার সার্ভিসের চারটি ইউনিটের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নেভানোর কাজ শুরু করে। রাত ১০টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। ঘটনার পর  কারখানায় গিয়ে কারখানা কর্তৃপক্ষকে পাওয়া যায়নি।


মন্তব্য