kalerkantho


নড়াইলে ধর্ষণ ও ভিডিও ধারণ থানায় মামলা

নড়াইল প্রতিনিধি   

২১ এপ্রিল, ২০১৭ ০০:০০



নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলার পাচুড়িয়া গ্রামে এক মাদরাসা ছাত্রীকে ধর্ষণ করা হয়েছে। সহযোগীরা ধর্ষণের দৃশ্য মোবাইলে ধারণ করে। এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। মামলার পরও মেয়ে ও তার পরিবারকে হুমকির মুখে রেখেছে অভিযুক্তরা।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীকে (১৪) মল্লিকপুর গ্রামের নুরুজ্জামান মল্লিকের ছেলে মুজাহিদ মল্লিক (১৭) দীর্ঘদিন ধরে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। মেয়েটি এতে সাড়া দেয়নি। গত ১৬ এপ্রিল দুপুরে মাদরাসা থেকে বাড়ি ফিরছিল। পথে ওই যুবক ও তার সহযোগী জিসান, সজীব, চঞ্চল ও রোমান তার পথ রোধ করে। পাশের চান মিয়া শরিফের বাগানে নিয়ে যায়। মুজাহিদ যৌন নির্যাতন করে। এ সময় সহযোগীরা নির্যাতনের দৃশ্য ও ছবি মোবাইল ফোনে ধারণ করে। এ ঘটনা প্রকাশ করলে ভিডিও ইন্টারনেটে ছেড়ে দেওয়া হবে বলে হুমকি দেয়। মেয়েটি ঘটনা তার অভিভাবককে জানায়।

এদিকে ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ার জন্য মল্লিকপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) মেম্বার আব্দুল হাইয়ের নেতৃত্বে একটি মহল গত ১৮ এপ্রিল রাতে সালিসের আয়োজন করে। সালিসের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে বৈঠক পণ্ড করে দেয়। মেয়ের বাবা গত বুধবার রাতে পাঁচজনকে আসামি করে লোহাগড়া থানায় একটি মামলা করেন। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে নড়াইল সদর হাসপাতালে মেয়েটির স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়েছে। তবে পুলিশ কাউকে আটক করতে পারেনি।


মন্তব্য