kalerkantho


তাহিরপুরে অনিয়ম

৯২ জনের ভিজিডি চাল বিতরণ বন্ধ

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি   

২১ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



সুনামগঞ্জের তাহিরপুরের দক্ষিণ শ্রীপুর ইউনিয়নে ভিজিডি কার্ডধারীর তালিকা তৈরিতে অনিয়মের কারণে ৯২ জনের চাল বিতরণ স্থগিত করা হয়েছে। গত রবিবার ভিজিডি কার্ডধারীরা চাল নিতে এসে খালি হাতে ফিরে গেছে। ভিজিডি কার্ডধারীরা এ অভিযোগের কারণে গত জানুয়ারি মাস থেকে চাল পাচ্ছে না।

জানা গেছে, সম্প্রতি ভিজিডি কার্ড তৈরিতে অনিয়মের অভিযোগ এনে ইউনিয়নের পাঁচ ইউপি সদস্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা মহিলাবিষয়ক কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে উপজেলা মহিলাবিষয়ক কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে ২৬০ জনের মধ্যে ১৬৮ জনকে চাল দেওয়ার জন্য বলা হয়। অভিযোগ থাকায় বাকি ৯২ জনের চাল বিতরণ স্থগিত রাখা হয়। গত রবিবার তাহিরপুরের দক্ষিণ শ্রীপুর ইউনিয়নের ২৬০ জন হতদরিদ্রের মধ্যে ভিজিডি চাল বিতরণের কথা ছিল। ১৬৮ জন চাল পেলেও অভিযুক্তদের মধ্যে ৯২ জন পায়নি। ৯২ জনের চাল ইউনিয়ন পরিষদের তাহিরপুর বাজারের অস্থায়ী কার্যালয়ে জমা রাখার জন্য ইউনিয়ন পরিষদের সচিব দীপক রঞ্জন দাসকে নির্দেশনা দিয়েছে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ।

জানা গেছে, ৯ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য কামাল আহমেদ, ২ নম্বর ওয়ার্ডের সাইদুর রহমান ছোটন, ৮ নম্বর ওয়ার্ডের মিয়া হোসেন, ৭ নম্বর ওয়ার্ডের গোলাম সারোয়ার ডালিম, ৪ নম্বর ওয়ার্ডের শাহাবউদ্দিন অনিয়মের অভিযোগ এনে একটি আবেদন করেছিলেন। ইউপি চেয়ারম্যান অনিয়মের মাধ্যমে তাঁর নিজের লোকদের মধ্যে এই ভিজিডি কার্ড বিতরণ করেছেন বলে তাঁরা লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করেন।

গত রবিবার ইউপি চেয়ারম্যান বিষয়টি সুরাহা হওয়ার আগেই চাল বিতরণের সিদ্ধান্ত নেন। কিন্তু উপজেলা মহিলাবিষয়ক কর্মকর্তার কার্যালয় অনিয়মের কারণে ৯২ জনের ভিজিডি কার্ড স্থগিত করে চাল বিতরণ বন্ধ রাখে।

৪ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য শাহাবউদ্দিন বলেন, ‘আমার ওয়ার্ডের মানিকখিলা গ্রামে একই পরিবারের দুজন মমতাজ বেগম ও তাঁর মেয়ে মিনা বেগম ভিজিডি কার্ড পেয়েছেন। ’

দক্ষিণ শ্রীপুর ইউনিয়ন পরিষদের সচিব দীপক রঞ্জন দাস বলেন, ৯২ জন ভিজিডি কার্ডধারীকে চাল বিতরণ না করার জন্য আমাকে মহিলাবিষয়ক অফিস থেকে নিষেধ করা হয়েছে।

দক্ষিণ শ্রীপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান বিশ্বজিত সরকারের মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করলেও তিনি ফোন ধরেননি।

তাহিরপুর উপজেলা মহিলাবিষয়ক কর্মকর্তা লায়লা পারভীন নাহার বলেন, ইউপি সদস্যদের লিখিত অভিযোগ পেয়ে ৯২ জন ভিজিডি কার্ডধারীর চাল বিতরণ স্থগিত রাখা হয়েছে।


মন্তব্য