kalerkantho


সোনারগাঁয় তিন ছাত্রীকে অপহরণচেষ্টার অভিযোগ

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি   

১৯ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁর প্রতাপের চর এলাকায় এক যুবক তিন মাদরাসা ছাত্রীকে দুই দফা অপহরণের চেষ্টা চালিয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় উত্তেজিত জনতা ওই যুবককে আটক করে পিটুনির পর পুলিশে দেয়।

এ ঘটনায় থানায় একটি অভিযোগ করা হয়েছে। অভিযুক্ত যুবকের নাম নূরুল ইসলাম। তিনি অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, উপজেলার পিরোজপুর ইউনিয়নের প্রতাপের চরের ওই তিন শিশু শিক্ষার্থীকে ১০ দিন আগে চকোলেট ও আইসক্রিম দেওয়ার কথা বলে অপহরণের চেষ্টা চালান নূরুল ইসলাম। এ সময় তারা চিৎকার দিলে নূরুল পালিয়ে যান। বিষয়টি ওই ছাত্রীদের মা-বাবা মাদরাসা শিক্ষকদের জানান। এ ঘটনায় পরিবার তিনটিতে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। গতকালও নূরুল ওই তিন ছাত্রীকে চকোলেট ও আইসক্রিম দিয়ে অপহরণের চেষ্টা চালান। এ সময় এক ছাত্রী দৌড়ে গিয়ে বিষয়টি তার মা ও ভাড়া বাড়ির মালিক জাহাঙ্গীর মিয়াকে জানান। পরে জাহাঙ্গীর মিয়া ও তাঁর বাড়ির আশপাশের লোকজন মিলে নূরুলকে আটকের পর পিটুনি দেয়। অভিযুক্ত নূরুল ইসলাম বলেন, তিনি ওই তিন ছাত্রীকে অপরহরণের কোনো চেষ্টা করেননি। তাঁর বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ এনে কিছু লোক তাঁকে বেধড়ক মারধর করেছে। তিনি মেঘনা শিল্পনগর এলাকায় একটি শিল্পপ্রতিষ্ঠানে শ্রমিক হিসেবে কাজ করেন। সোনারগাঁ থানার ওসি মঞ্জুর কাদের জানান, অভিযোগটি তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


মন্তব্য