kalerkantho


প্রকৌশলীকে মারধর-হুমকি

গাংনীতে গ্রেপ্তার তিন আওয়ামী লীগ নেতা

মেহেরপুর প্রতিনিধি   

১৯ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



মেহেরপুরের গাংনীতে এলজিইডি প্রকৌশলীকে মারধর ও হুমকির ঘটনায় মামলা করার পর আওয়ামী লীগের তিন নেতাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গত মঙ্গলবারের ওই ঘটনায় শুক্রবার মামলা করা হলে ওই রাতেই তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন গাংনী শহরের ৭ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি জহুরুল ইসলাম, যুবলীগ নেতা মহিবুল ইসলাম ও জসিম উদ্দিন।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, গত মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলা এলজিইডি কার্যালয়ে আওয়ামী লীগ নেতা জহুরুল ইসলাম, জসিম উদ্দিন, মহিবুল ইসলামসহ ৮-৯ জন উপজেলা প্রকৌশলীর কক্ষে যান। এ সময় তাঁরা গাংনী উপজেলার নবীনপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবন নিয়ে উপজেলা প্রকৌশলীকে মাথা না ঘামাতে বলেন। এ নিয়ে বেশি বাড়াবাড়ি করলে মেরে পুরনো কবরস্থানে লাশ ফেলে দেওয়া হবে বলে হুমকি দেন। এ সময় তিনি প্রতিবাদ করতে গেলে আসামিরা উপজেলা প্রকৌশলীকে চড়থাপড় দেন। ওই দিনের ঘটনায় শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলা প্রকৌশলী বাদী হয়ে ওই তিনজনের নাম উল্লেখ করে গাংনী থানায় মামলা করেন। পরে পুলিশ শুক্রবার রাতেই ওই তিনজনকে গ্রেপ্তার করে।

এদিকে নবীনপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবনের ঠিকাদার জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ খালেক, গাংনী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফাসহ বেশকিছু নেতাকর্মী গ্রেপ্তার হওয়া আসামিদের ছাড়িয়ে নিতে নানাভাবে তদবির চালিয়ে ব্যর্থ হন। গতকাল শনিবার দুপুরে তাঁদের আদালতের নির্দেশে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে গাংনী থানার ওসি আনোয়ার হোসেন জানান, উপজেলা প্রকৌশলীর অভিযোগের ভিত্তিতে তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাঁদের ছেড়ে দেওয়ার কোনো সুযোগ নাই। দুপুরে আদালতের নির্দেশে তাঁদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

 


মন্তব্য