kalerkantho


ফেনীতে আইনজীবীর চেম্বারে আগুন

ফেনী প্রতিনিধি   

১৮ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



ফেনীর অন্যতম জ্যেষ্ঠ আইনজীবী কলমদার হায়দারের চেম্বারে অগ্নিসংযোগ করা হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার গভীর রাতে কে বা কারা তাঁর চেম্বারের দেয়ালের একাংশ ভেঙে ভেতরে ঢোকে এবং আগুন দেয়।

সহকারী আইনজীবী মো. সামছুল হুদা জানান, জ্যেষ্ঠ দেওয়ানি আইনজীবী কলমদার হায়দার শহীদ সেলিনা পারভীন সড়কে দীর্ঘদিন ধরে চেম্বার করছেন। বর্তমানে তিনি নানা জটিল রোগে আক্রান্ত হয়ে ভারতে চিকিৎসাধীন। এখন তাঁর সহকারীরা চেম্বারের কার্যক্রম চালাচ্ছেন। বৃহস্পতিবার রাতের কোনো এক সময় কে বা কারা চেম্বারের পেছনের দিকের একটি দেয়ালের একাংশ ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করে আগুন দেয়। ফলে চেম্বারের বেশ কিছু আসবাবপত্র, ফাইল পুড়ে যায়। খবর পেয়ে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে আগুন নেভায়। তবে এতে কী পরিমাণ ক্ষতি হয়েছে বা কতগুলো ফাইল পুড়ে গেছে সে ব্যাপারে তাৎক্ষণিক কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। এ বিষয়ে জ্যেষ্ঠ আইনজীবীদের সঙ্গে কথা বলে ফেনী মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দেওয়া হবে।

পাশে ওই আইনজীবীর বাসভবন।

ভবনের প্রহরী আব্দুল ওয়াহাব জানান, দুর্বৃত্তরা ভেতরে ঢুকে একটি কক্ষের তালা ভেঙে আগুন দেয়।

ফেনী মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) নুরুল আমিন বলেন, ‘পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। তদন্ত করে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ’

ফেনী জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ফয়েজুল হক মিলকী এ ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেন, ‘দ্রুত সময়ের মধ্যে সমিতির কর্মকর্তাদের সঙ্গে সভা করে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপের উদ্যোগ নেওয়া হবে। যে বা যারাই এ ন্যক্কারজনক ঘটনা ঘটিয়েছে, তাদের আইনের আওতায় এনে শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে। ’

নাসিরনগরে পুড়ল ১১টি বসতঘর

এদিকে আমাদের ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি জানান, নাসিরনগরের গুনিয়াউক গ্রামের পাঠানপাড়ায় অগ্নিকাণ্ডে অন্তত ১১টি বসতঘর পুড়ে গেছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে অগ্নিকাণ্ডের এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয় সূত্র জানায়, বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে লাগা আগুন মুহূর্তেই কয়েকটি বাড়িতে ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় আগুনের হাত থেকে বাঁচাতে ছয়টি ঘর ভেঙে ফেলা হয়। পরে মাধবপুর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন।


মন্তব্য