kalerkantho


কালীগঞ্জে চোর সন্দেহে যুবককে পিটিয়ে হত্যা

ফতুল্লায় খুন গার্মেন্ট শ্রমিক

প্রিয় দেশ ডেস্ক   

১৬ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



গাজীপুরের কালীগঞ্জে চোর সন্দেহে যুবককে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় গার্মেন্ট শ্রমিককে কুপিয়ে মেরেছে দুর্বৃত্তরা। তাঁর কাছ থেকে লুট করা হয়েছে টাকা ও মোবাইল ফোন।

গাজীপুর : ঢাকা-চট্টগ্রাম রেললাইনের পাশে কালীগঞ্জ পৌরসভার ঘোনাপাড়ায় গতকাল বুধবার চোর সন্দেহে অজ্ঞাতপরিচয় যুবককে পিটিয়ে হত্যা করেছে স্থানীয়রা। দুপুরে ঘটনাস্থল থেকে তাঁর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। যুবকের পরনে অফ-হোয়াইট রঙের প্যান্ট ও লাল-সবুজ গেঞ্জি ছিল। পাশেই পড়ে ছিল রক্তমাখা গামছা। অজ্ঞাতপরিচয় যুবকটি গতকাল ভোরে ঘোনাপাড়ার রহিম মিয়ার ছেলে শাওন মিয়ার ঘরে ঢোকেন। এ সময় শাওন তাঁকে দেখে ‘চোর’ বলে চিত্কার দেয়। তখন যুবকটি দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করেন। শাওন ও তার ভাই রানা মিলে ধাওয়া দিয়ে পাশের কামাল হোসেনের বাড়ির সামনে তাঁকে ধরে ফেলে।

পরে স্থানীয়রা তাঁকে পিটিয়ে রেললাইনের পাশে ফেলে রেখে যায়। পথচারীরা যুবককে দেখতে পেয়ে কাছে গেলে তিনি তাঁর বাড়ি কিশোরগঞ্জের ভৈরবে ও টঙ্গীর বাস্তুহারায় থাকেন বলে জানান। এর কিছুক্ষণ পরই তাঁর মৃত্যু হয়। এ ব্যাপারে কালীগঞ্জ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পঙ্কজ দত্ত জানান, যুবকের দুই পা ভাঙা, হাতে ও কোমরে গুরুতর আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

নারায়ণগঞ্জ : ফতুল্লায় গার্মেন্ট শ্রমিক হারুনুর রশিদকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। তাঁর কাছ থেকে লুটে নেওয়া হয়েছে টাকা ও মোবাইল ফোনসেট। ঘটনাটি ঘটেছে গত মঙ্গলবার রাতে ফতুল্লার দেওভোগ নাগবাড়ী এলাকায়। হারুনুর একই এলাকায় কাশেম মিয়ার বাড়িতে ভাড়া থাকতেন। তিনি ফতুল্লার শিবু মার্কেট এলাকার রপ্তানিমুখী গার্মেন্ট ‘এআরএস’র শ্রমিক ও ময়মনসিংহের ত্রিশালের শরিফউদ্দিনের ছেলে ছিলেন। ফতুল্লা মডেল থানার ওসি কামালউদ্দিন জানান, মঙ্গলবার রাতের ডিউটি শেষে শহরের ২ নম্বর রেলগেট এলাকা থেকে রিকশায় চড়ে বাসায় ফিরছিলেন হারুনুর রশিদ। পথে দেওভোগে ব্যাটারিচালিত অটোরিকশায় করে আসা কয়েকজন দুর্বৃত্ত তাঁকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আহত করে। তাঁকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।


মন্তব্য