kalerkantho


মন্ত্রীর আগমনে মর্গ্যান স্কুলে মঞ্চ

কাটা পড়ল ৫০ বছরের পুরনো ৬ নারিকেলগাছ

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি   

১৫ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



নারায়ণগঞ্জে একজন মন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে শহরের একটি বালিকা বিদ্যালয়ের প্রায় ৫০ বছরের পুরনো ছয়টি নারিকেলগাছ কেটে ফেলেছে স্কুল কর্তৃপক্ষ। মন্ত্রীর আগমন ও বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া অনুষ্ঠান উপলক্ষে স্কুলে করা হচ্ছে বিশাল মঞ্চ। এ মঞ্চ করতে গিয়েই স্কুলের প্রায় ৫০ বছরের পুরনো ছয়টি গাছ  কেটে ফেলে স্কুল কর্তৃপক্ষ। যদিও স্কুলের প্রধান শিক্ষক দাবি করেছেন, অনুষ্ঠানের জন্য নয়, গাছগুলো মরা ছিল আর এসব গাছে এখন আর নারিকেল ধরছে না বলেই স্কুল কমিটির সিদ্ধান্তে তাঁরা গাছগুলো  কেটেছেন।

মঙ্গলবার বিকেলে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, আগামীকাল বৃহস্পতিবার বিদ্যালয়ে ক্রীড়া প্রতিযোগিতা উপলক্ষে চলছে বিশাল মঞ্চ নির্মাণের কাজ। মঞ্চের জন্য ফ্রেম তৈরি করতে গিয়ে এসব গাছ বাধা হয়ে দাঁড়ায়। তাই কেটে ফেলা হয় মঞ্চের ফ্রেমের বাধা পড়া ছয়টি গাছ। গাছ কেটেই চলছে পুরোদমে মঞ্চ নির্মাণের কাজ। মাঠে কাজ করা মঞ্চ নির্মাণ শ্রমিকদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, মঞ্চের অসুবিধা হয়, তাই গাছ কেটে ফেলা হয়েছে। গাছগুলোর কারণে বিশাল মঞ্চের ফ্রেম করা সম্ভব হচ্ছিল না।

এদিকে গাছ কাটার কারণে স্কুলের একাধিক শিক্ষার্থী ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন।

যদিও তারা কেউই এ ব্যাপারে প্রকাশ্যে শিক্ষকদের সামনে কিছু বলতে নারাজ। কারণ স্কুলের ক্লাস ও পরীক্ষায় এতে করে শিক্ষার্থীরা শিক্ষকদের বিরাগভাজন হবে।

শিক্ষার্থীরা জানায়, আসলে এসব গাছের সঙ্গে তাদের দীর্ঘদিনের সম্পর্ক। গাছগুলোর ছায়ায় তারা ক্লাস বিরতির সময় ও ক্লাস শুরুর আগে ও পরে বসে বিশ্রাম নিত। এসব গাছের অনেক নারিকেলও খেয়েছে শিক্ষার্থীরা।

কয়েকজন অভিভাবকের সঙ্গে কথা বললে তাঁরা জানান, গাছ তো পরিবেশের জন্য অনেক দরকারি আর এসব গাছ দীর্ঘদিন আগের। এসব গাছ কেন কাটা হলো তা বোধগম্য নয়। তবে গাছগুলো রেখে মঞ্চ করা  গেলে অনেক ভালো হতো। গাছগুলোর ছায়ায় আমাদের সন্তানরা বসে গল্প করত। মর্গ্যান বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাইদুর রহমান বলেন, ‘দু-তিনটি গাছ মারা গেছে, আমরা আরো নতুন বৃক্ষ রোপণ করব। আর কয়েকটি গাছে এখন আর নারিকেল হয় না। তাই কমিটির  রেজ্যুলেশনের সিদ্ধান্ত মোতাবেক বৃক্ষগুলো কাটা হয়েছে। ’

অনুষ্ঠান প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আসলে অনুষ্ঠান উপলক্ষে অনেক বড় মঞ্চ করা হয়েছে, তবে এ জন্য গাছ কাটা হয়নি। গাছ আরো দু-তিন দিন আগেই কাটা হয়েছে। এর আগেও স্কুল ভবন নির্মাণের জন্য আমরা গাছ কেটেছিলাম। ’


মন্তব্য