kalerkantho


সেচের পানি নিয়ে ঈশ্বরগঞ্জে সংঘর্ষ নারীসহ আহত ১০

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি   

১৪ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার উত্তর দত্তগ্রাম এলাকায় গতকাল সোমবার সেচের পানি নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাঁধে। এতে উভয় পক্ষে নারীসহ কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছেন। গুরুতর আহত পাঁচজনকে ভর্তি করা হয়েছে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। তাঁরা হলেন মো. মাহফুজ মিয়া, আলেয়া খাতুন, শামছুন্নাহার, এমদাদুল হক ও আবদুল মজিদ।

স্থানীয় লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, সেচের পানির জন্য ৯ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. নুরুল আমীন এবং একই গ্রামের কৃষক মো. আবদুর রশিদের পক্ষের লোকজনের মধ্যে ওই সংঘর্ষ হয়। নুরুল আমীনের স্ত্রী কুলসুম আক্তার জানান, গ্রামের কৃষক সমিতির মালিকানাধীন গভীর নলকূপ লিজ নিয়ে পরিচালনা করছেন তাঁর স্বামী। একই গ্রামের কৃষক আবদুর রশিদের ২০০ শতক জমি এই নলকূপের আওতায়। কুলসুম অভিযোগ করে বলেন, রশিদ টাকা না দিয়ে সেচের পানি নেওয়ার জন্য জোর খাটান। কিন্তু টাকা ছাড়া সেচের পানি দিতে রাজি না হলে গত রবিবার কাওরান বাজারে তাঁর স্বামী নুরুল আমীনকে ভয় দেখান রশিদ। পরে গতকাল সকালে রশিদের পক্ষের লোকজন তাদের বাড়িঘরে হামলা চালিয়ে মারধর করে চারজনকে আহত করে। মরছব আলী নামের এক কৃষক বলেন, ইচ্ছা করেই এই হামলা চালিয়ে লোকজনকে আহত করা হয়েছে।


মন্তব্য