kalerkantho


রাজশাহীতে তালিকাভুক্ত পাঁচ জেএমবি গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী   

১২ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



রাজশাহীর বাগমারায় শুক্রবার রাতভর অভিযান চালিয়ে তালিকাভুক্ত জামা’আতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশের (জেএমবি) পাঁচ সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। একই রাতে নাটোরের বড়াইগ্রাম থেকে জঙ্গিগোষ্ঠীটির সদস্য সন্দেহে আরো দুজনকে আটক করা হয়েছে।

বাগমারা থানার ওসি নাসিম আহমেদ জানান, গ্রেপ্তারকৃত সবার বিরুদ্ধে থানায় একাধিক মামলা আছে। সন্ত্রাসবিরোধী আইনে আরেকটি মামলা করে গতকাল শনিবার বিকেলে তাদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়।

গ্রেপ্তারকৃত পাঁচজন হলো বাগমারার ভবানীগঞ্জ গ্রামের মকবুল হোসেনের ছেলে রহিদুল ইসলাম (৪৩), উদপাড়া গ্রামের মৃত নাসির উদ্দিনের ছেলে লুত্ফর রহমান (৩৮), চন্দ্রপুর গ্রামের মৃত শুকুর উদ্দিনের ছেলে আবুল হোসেন (৫৫), জাবেদ আলীর ছেলে আবদুল মান্নান (৩৫) ও মৃত সামির উদ্দিনের ছেলে আবদুস সাত্তার (৩৩)।

পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তারা জানতে পারে, আবদুস সাত্তারের নেতৃত্বে পুরনো জেএমবি সদস্যরা বাগমারায় আবারও নতুন করে তাদের কর্মকাণ্ড শুরু করেছে। এরপর শুক্রবার রাতভর উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে সাত্তারসহ পাঁচজনকে আটক করে।

এদিকে শুক্রবার রাত ১০টার দিকে নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার মেরিগাছা গ্রাম থেকে সন্দেহভাজন দুই জেএমবি সদস্যকে আটক করা হয়েছে। তারা হলো মেরিগাছা গ্রামের উত্তরপাড়ার গেদু প্রামাণিকের ছেলে সাহাবুদ্দিন ওরফে সাহাবুদ্দিন মাস্টার ও একই এলাকার আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে রহিদুল ইসলাম। বড়াইগ্রাম সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শফিকুল ইসলাম জানান, জেএমবির সঙ্গে জড়িত অভিযোগে ২০০৯ সালে রাজশাহীতে এ দুজনকে আটক করা হয়। বোয়ালিয়া থানায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়।

দেশব্যাপী জঙ্গিবিরোধী অভিযানের অংশ হিসেবে এবং নাশকতার আশঙ্কায় তাদের আবারও গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

পুলিশ কর্মকর্তা জানান, সাহাবুদ্দিন ও রহিদুলকে বড়াইগ্রাম থানায় রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।


মন্তব্য