kalerkantho


ফুলবাড়ীতে বেশি দামে বিক্রি ইউরিয়া সার

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি   

১২ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



বোরোর ভরা মৌসুমে কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার বাজারগুলোতে বেশি দামে ইউরিয়া সার বিক্রি হচ্ছে। ব্যবসায়ীরা কৃত্রিম সংকট দেখিয়ে এক বস্তা সার ৮৫০ টাকা বা এরও বেশি দামে বিক্রি করছেন। অথচ সরকার নির্ধারিত প্রতি বস্তা সারের সর্বোচ্চ মূল্য ৮০০ টাকা।

হঠাৎ ইউরিয়া সারের দাম বাড়ায় বিপাকে পড়েছে সাধারণ কৃষক। তারা ডিলারদের কাছ থেকে সরাসরি সার না পেয়ে বাধ্য হয়ে বাজার থেকে বেশি দামে কিনছে। কৃষি অধিদপ্তরের মনিটরিংয়ের দায়িত্ব অবহেলার কারণে ডিলারদের সারের দোকান বন্ধ থাকায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে কৃষকরা।

সূত্র জানায়, কৃষকরা অতি কষ্টে ইরি-বোরো লাগালেও মধ্য মৌসুমে এসে সার পাচ্ছে না। প্রতিদিন সার ডিলারদের দোকানে ধরনা দিয়েও চাহিদা অনুযায়ী সার উত্তোলন করতে পারছে না। কাফকো ও শাহজালাল সার কারখানায় সার সংকট থাকার অজুহাতে ব্যবসায়ীরা বস্তাপ্রতি ৮০-৯০ টাকা বেশি দাম নিচ্ছেন।

সূত্র মতে, ফুলবাড়ী উপজেলায় বিসিআইসির সাতজন ও বিএডিসির ছয়জন সার ডিলার নিয়োগ করা হলেও তাঁদের  বেশির ভাগই অন্য উপজেলার বাসিন্দা। এ কারণে প্রায়ই বন্ধ থাকে তাঁদের দোকান।

তাঁরা রাতে ভালো মানের ইউরিয়া সার উত্তোলন করে খুচরা বিক্রেতাদের কাছে বেচে দিচ্ছেন। আর সার সংকটের ধুয়া তুলে খুচরা বিক্রেতারা বেশি দাম নিচ্ছেন সাধারণ কৃষকদের কাছ থেকে। খুচরা বাজারে প্রতি কেজি ইউরিয়া ১৮-১৯ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।


মন্তব্য