kalerkantho


বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা

‘প্রতিষ্ঠিত না হয়ে বিয়ে নয়’

গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি   

১০ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



দশম শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রীর বিয়ে। বাড়িতে আত্মীয়স্বজনসহ আমন্ত্রিতদের উপস্থিতিতে উত্সবের আমেজ। কয়েক ঘণ্টা পরই আসবেন বর। এমন অবস্থায় ওই বাড়িতে পুলিশ গিয়ে ভেঙে দিয়েছে এ বাল্যবিয়ে। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে।

সূত্র জানায়, পৌরসভার কুমড়াকান্দি মহল্লার বই ব্যবসায়ী মোহন শেখের মেয়ে শেখ মনিজা প্রীতি। সে স্থানীয় শহীদ স্মৃতি সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী। বিদ্যালয়ে নিবন্ধন অনুযায়ী তার বয়স প্রায় ১৬ বছর। প্রীতির অসম্মতিতে তার সঙ্গে বিয়ের আয়োজন করা হয় গোয়ালন্দ উপজেলার দরাপেরডাঙ্গী গ্রামের বিল্লাল হোসেনের ছেলে বাংলাদেশ নৌবাহিনীতে চাকরিরত রমজান আলীর (২৬)। বিয়ের দিন ছিল গতকাল। খবর পেয়ে সকাল ১১টার দিকে মোহন শেখের বাড়িতে যায় গোয়ালন্দ ঘাট থানা-পুলিশের একটি দল।

পরে কনের মা-বাবাসহ প্রতিবেশীদের সঙ্গে কথা বলে বাল্যবিয়েটি ভেঙে দেয় পুলিশ। বিয়ের ঘটক ইয়াছিন বাবু এলাকা ছেড়ে পালিয়েছেন। স্থানীয় পৌর কাউন্সিলর মো. হাবিবুর রহমান বলেন, ‘বাল্যবিয়ে আইনত নিষিদ্ধ। পুলিশের দ্রুত হস্তক্ষেপে ওই স্কুল ছাত্রী অল্পতে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেয়েছে। ’

মনিজা প্রীতি বলে, ‘আমি লেখাপড়া করে প্রতিষ্ঠিত না হওয়া পর্যন্ত বিয়ের পিঁড়িতে বসতে চাই না। ’


মন্তব্য