kalerkantho


অবৈধ ভিওআইপি ব্যবসায়ীসহ গ্রেপ্তার ৬, মাদক উদ্ধার

প্রিয় দেশ ডেস্ক   

১০ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



নারায়ণগঞ্জ ও কেরানীগঞ্জে অবৈধ ভিওআইপি ব্যবসা ও মাদক কারবারের অভিযোগে ছয়জনকে গ্রেপ্তার করেছে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। গত বুধবার রাতে ও গতকাল বৃহস্পতিবার এ অভিযান চালানো হয়। কালের কণ্ঠ’র প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

নারায়ণগঞ্জ : অবৈধ ভিওআইপি (ভয়েজ ওভার ইন্টারনেট প্রটোকল) ব্যবসায় জড়িত থাকার অভিযোগে সিদ্ধিরগঞ্জের সানারপাড় এলাকা থেকে চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। এ সময় এক হাজার ২৮৪টি সিমসহ ভিওআইপি ব্যবসায় ব্যবহৃত সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়। বুধবার রাতের এ অভিযানে গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন নোয়াখালীর আবু নোমান খসরু (৪২), ফয়েজ আহমেদ রাজু (৩৫), ফেনীর আলমগীর হোসেন ওরফে মিশু ও চট্টগ্রামের আব্দুল্লাহ আল মামুন (২৫)। গতকাল বিকেলে জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানায় পুলিশ। সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার মঈনুল হক, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোস্তাফিজুর রহমান, জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ওসি মাহমুদুল ইসলাম প্রমুখ।

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) : সোনারগাঁ উপজেলার কাঁচপুর থেকে গতকাল ইয়াবা বড়ি কারবারের অভিযোগে ইকবাল হোসেন নামের একজনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। সোনারগাঁ থানার উপপরিদর্শক মনিরুজ্জামান মনির জানান, কাঁচপুর সোনাপুর এলাকার ইকবাল হোসেন ও তার সহযোগীরা দীর্ঘদিন ধরে টেকনাফ থেকে সরাসরি ইয়াবা এনে কাঁচপুর, যাত্রামুড়া, চিটাগাংরোড, মদনপুর ও আশপাশের এলাকায় বিক্রি করে।

কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) : বুধবার রাতে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জের ইকুরিয়া ও হাসনাবাদে অভিযান চালিয়ে এক হাজার ৫০০ পুরিয়া হেরোইনসহ চার মাদক কারবারিকে গ্রেপ্তারের দাবি করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো মিঠুন, বাবুল মিয়া ওরফে বাবু, নুরুল ইসলাম ও আয়েশা।

দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ থানার ওসি মনিরুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় সহকারী উপপরিদর্শক সেলিম মোল্লা মাদক আইনে দুটি মামলা করেছেন।

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) : রূপগঞ্জে ২০টি ইয়াবাসহ জুয়েল (৩০) নামের একজনকে গ্রেপ্তারের কথা জানিয়েছে পুলিশ। গতকাল উপজেলার তারাব পৌরসভার দক্ষিণপাড়া থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। সে ওই এলাকার বাসিন্দা। রূপগঞ্জ থানার পুলিশ জানায়, জুয়েল দীর্ঘদিন ধরে তারাবসহ বিভিন্ন এলাকায় ইয়াবা ট্যাবলেটসহ বিভিন্ন মাদকদ্রব্য বিক্রি করছে বলে পুলিশের কাছে সংবাদ ছিল।


মন্তব্য