kalerkantho


নবাবগঞ্জে কৃষককে হত্যা, স্ত্রী আহত

দোহার-নবাবগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি   

৯ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



ঢাকার নবাবগঞ্জে কৃষক সাত্তার বেপারী ওরফে সত্তরকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন তাঁর স্ত্রী হাসিনা বেগম। গত মঙ্গলবার রাতে উপজেলার কাঁঠালীঘাটা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাটি পরিকল্পিত হামলা না ডাকাতি তা জানাতে পারেনি পুলিশ।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, রাত ৩টার দিকে ১৪-১৫ জনের সশস্ত্র একদল দুর্বৃত্ত সাত্তার বেপারীর ঘরের দরজা ভেঙে ভেতরে ঢুকে তাঁকে মারধর শুরু করে। এ সময় তাঁর স্ত্রী হাসিনা এগিয়ে গেলে তাঁকেও মারধর করা হয়। একপর্যায় দুর্বৃত্তরা সাত্তারের মাথায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপ দিলে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। একই ঘটনায় গুরুতর আহত হন তাঁর স্ত্রী। চিত্কার ও কান্নার শব্দ পেয়ে এলাকাবাসী এগিয়ে এলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। স্থানীয়রা স্বামী-স্ত্রীকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক স্বামীকে মৃত ঘোষণা করেন।

খবর পেয়ে নবাবগঞ্জ ও দোহার থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। পরদিন বুধবার সকালে সাত্তারের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য স্যার সলিমুল্লাহ মেডিক্যাল কলেজ মিটফোর্ড হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।

এলাকার কয়েকজন বলে, ‘গুলি ও চিত্কারের শব্দ পেয়ে আমরা এগিয়ে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। ’ অন্যদিকে সাত্তারের ছেলের বউ রিনা আক্তার বলেন, ‘দুর্বৃত্তরা ঘরে ঢুকেই আমার শ্বশুরকে মারধর ও অকথ্য ভাষায় গালাগাল শুরু করে। আমার শাশুড়ি আমাকে পাশের রুমে দরজা আটকে রাখতে বলেন। যে কারণে আমি কিছু দেখতে পাইনি। ’ দুর্বৃত্তরা ঘরের কোনো জিনিসপত্র নেয়নি বলে রিনা জানান।

এ ব্যাপারে নবাবগঞ্জ থানার ওসি মোস্তফা কামাল জানান, ঘটনাটি যারা ঘটিয়েছে, তাদের শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে। ওসি আরো জানান, এটি ডাকাতি না পরিকল্পিত কোনো ঘটনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।


মন্তব্য