kalerkantho


‘ভুল’ ইনজেকশনে মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যু

প্রতিবেদন দিয়েছে তদন্ত কমিটি

বাগেরহাট প্রতিনিধি   

৭ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



বাগেরহাটে ভুল ইনজেকশন পুশ করায় এক মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যুর অভিযোগে গঠিত তদন্ত কমটি তাদের প্রতিবেদন জমা দিয়েছে। পরবর্তী নির্দেশনার জন্য প্রতিবেদনটি গতকাল সোমবার বাগেরহাট সিভিল সার্জন অফিস থেকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে পাঠানো হয়েছে। তবে তদন্ত প্রতিবেদনে কী উল্লেখ করা হয়েছে তা সংবাদমাধ্যমকে জানাননি সিভিল সার্জন অরুণ চন্দ্র মণ্ডল।

বাগেরহাট সদর উপজেলার গোটাপাড়া ইউনিয়নের বেনেগাতী গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম তরফদার (৬৫) গত ১৬ ফেব্রুয়ারি রাতে তাঁর বাড়িতে মারা যান। অসুস্থতার কারণে শরীরে ইনজেকশন পুশ করার কয়েক মিনিটের মধ্যে তাঁর মৃত্যু হয়। অভিযোগ ওঠে, চিকিৎসক ব্যবস্থাপত্রে যে ইনজেকশন লিখেছিলেন, ফার্মেসি থেকে সেটির পরিবর্তে অন্য ইনজেকশন সরবরাহ করা হয়। ওই ইনজেকশন নুরুল ইসলামের শরীরে পুশ করার পর তাঁর মৃত্যু হয়েছে বলে লোকমুখে অভিযোগ ছড়ায়। তবে তাঁর পরিবার ভুল ইনজেকশন পুশ করার কথা বললেও ওই ফার্মেসির বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ করেনি। এই অবস্থায় সিভিল সার্জন গত ১৯ ফেব্রুয়ারি চার সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেন।

সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. সমীর কান্তি পালের নেতৃত্বে ওই কমিটি তদন্ত করে সম্প্রতি সিভিল সার্জনের কাছে প্রতিবেদন জমা দেয়। তদন্ত কমিটির সদস্যরাও প্রতিবেদন সম্পর্কে কোনো তথ্য জানাতে চাননি।

মুক্তিযোদ্ধার মেয়ে পারভীন বেগম ১৭ ফেব্রুয়ারি সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন, অসুস্থতার জন্য তাঁর বাবাকে চিকিৎসক দেখানো হয়। ওই চিকিৎসকের ব্যবস্থাপত্র নিয়ে ১৬ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় বাগেরহাট শহরের মেইন রোডের ইউনিক ফার্মেসি থেকে ওষুধ ও ইনজেকশন কিনে বাড়িতে আনা হয়। রাতে তাঁর বাবার শরীরে ওই ইনজেকশন পুশ করা হলে কয়েক মিনিটের মধ্যে তাঁর মৃত্যু হয়।


মন্তব্য