kalerkantho


ধসে পড়ল মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য নির্মাণাধীন বাড়ি

ঝালকাঠি প্রতিনিধি   

৭ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



ঝালকাঠির রাজাপুরে মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য সরকারের বরাদ্দ দেওয়া ভবন নির্মাণে অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ পাওয়া গেছে। মেয়াদোত্তীর্ণ সিমেন্ট ও নিম্নমানের রড ব্যবহারের ফলে ধসে পড়েছে নির্মাণাধীন ভবনের দেয়াল। তবে এতে কেউ হতাহত হয়নি।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, রাজাপুরে চারটি ভবন বরাদ্দ পেয়েছেন মুক্তিযোদ্ধারা। প্রতিটি বাড়িতে সরকার ব্যয় নির্ধারণ করেছে ৯ লাখ ৮৫ হাজার টাকা। রাজাপুর উপজেলার পশ্চিম ইন্দ্রপাশা গ্রামে মুক্তিযোদ্ধা নূরুল হকের বাড়িটি দিয়ে উপজেলার প্রথম নির্মাণকাজ শুরু হয়।

মুক্তিযোদ্ধা নূরুল হক বলেন, গত ৮ ফেব্রুয়ারি বাড়ির নির্মাণকাজ শুরু করে ঝালকাঠির এইচআর এন্টারপ্রাইজ নামের একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। কাজ শুরুর দুই সপ্তাহ না যেতেই ২০ ফেব্রুয়ারি ভবনের মেঝেতে বালু ভরাট করার সময় পূর্ব পাশের একটি দেয়াল ধসে পড়ে। এরপর নির্মাণসামগ্রীর মান নিয়ে প্রশ্ন তোলেন তিনি। কিন্তু তাঁর কথা না শুনে ঠিকাদারের লোকজন কাজ চালিয়ে যায়। এরপর গত ৪ মার্চ নির্মাণকাজ তদারকির সময় ভবনের ভেতরের আরেকটি দেয়ালে হাত দিলে তা নড়ে ওঠে।

সেই দেয়ালটিও ধসে পড়ার উপক্রম হলে নির্মাণকাজ বন্ধ করে দেন মুক্তিযোদ্ধা নূরুল হক। পরে ঠিকাদার রিয়াজ হোসেন ও উপজেলা সহকারী প্রকৌশলী জাকির হোসেন এসে সেই নড়বড়ে দেয়ালটিও ফেলে দেন।

মুক্তিযোদ্ধা নূরুল হক বলেন, ‘সরকার মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য এত কিছু করছে কিন্তু দুর্নীতিবাজ ও লুটেরাদের কারণে সরকারের সব অর্জন ম্লান হয়ে যাচ্ছে। যে বাড়িটি আমার জন্য সরকারি টাকায় নির্মাণ করা হচ্ছে, তাতে কিভাবে পরিবার-পরিজন নিয়ে নিশ্চিন্তে থাকব!’

এ বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা নির্বাহী প্রকৌশলী লুত্ফার রহমান বলেন, ‘অভিযোগ পেয়ে সহকারী প্রকৌশলী জাকির হোসেনকে ঘটনাস্থলে পাঠিয়েছি। সব নির্মাণসামগ্রী খারাপ নয়, তবে সিমেন্টের মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে, তাই সেগুলো পরিবর্তন করতে বলা হয়েছে। ’


মন্তব্য