kalerkantho


জাতীয় পাট দিবস

দেশজুড়ে নানা আয়োজন

প্রিয় দেশ ডেস্ক   

৭ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



দেশজুড়ে নানা আয়োজন

জাতীয় পাট দিবস উপলক্ষে গতকাল ময়মনসিংহ জুট মিলস লিমিটেডের কর্মীরা শহরে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করে। ছবি : কালের কণ্ঠ

‘সোনালি আঁশের সোনার দেশ, পাট পণ্যের বাংলাদেশ’ স্লোগান সামনে রেখে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে গতকাল সোমবার দেশজুড়ে পালিত হয়েছে জাতীয় পাট দিবস। দিবসটি উপলক্ষে জেলা ও উপজেলায় বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। পাটের তাত্পর্য তুলে ধরে আয়োজন করা হয় আলোচনাসভার। আলোচনায় বক্তারা বলেন, উন্নত দেশ পরিবেশের ব্যাপারে সচেতন হওয়ায় পাটের চাহিদা বাড়ছে। সাধারণ মানুষকে পরিবেশ সম্পর্কে সচেতন করা গেলে দেশে পাটের বিশাল বাজার সৃষ্টি হবে। এ ব্যাপারে আমাদের নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

মাগুরা : সকালে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে গিয়ে শেষ হয়। পরে জেলা প্রশাসকের মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত আলোচনাসভায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আজমল হকের সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন জেলা প্রশাসক মুহ. মাহবুবর রহমান, কৃষি উপপরিচালক পার্থ প্রতিম সাহা, জেলা পাট উন্নয়ন কর্মকর্তা হারুন অর রশিদ, মুখ্য পাট কর্মকর্তা আকতার হোসেন প্রমুখ।

নরসিংদী : জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত আলোচনাসভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক ড. সুভাষ চন্দ্র বিশ্বাস। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মাহবুব হাসান শাহীনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন পুলিশ সুপার আমেনা বেগম, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক লতাফত হোসেন, পাট অধিদপ্তরের পাট উন্নয়ন কর্মকর্তা নাজমুল আলম চৌধুরী, কোহিনূর জুট মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তারেক আহমেদ প্রমুখ।

ফরিদপুর : জেলা প্রশাসন ও পাট অধিদপ্তরের যৌথ উদ্যোগে সকালে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে থেকে শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রাটি বিভিন্ন সড়ক ঘুরে শহরের কবি জসীমউদ্দীন হলে গিয়ে শেষ হয়।

পরে সেখানে পাট অধিদপ্তরের ফরিদপুরের সহকারী পরিচালক আব্দুস সামাদ আজাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনাসভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক বেগম উম্মে সালমা তানজিয়া। বক্তব্য দেন ফরিদপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. লোকমান হোসেন মৃধা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মো. এরাদুল হক, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আমিনুর রহমান, আব্দুর রাজ্জাক মোল্লা প্রমুখ।

জামালপুর : জেলা প্রশাসক মো. শাহাবুদ্দিন খানের নেতৃত্বে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রাটি জেলা শহরের চাঁপাতলা ঘাট থেকে শুরু হয়ে শিল্পকলা একাডেমিতে গিয়ে শেষ হয়। পরে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. রাসেল সাবরিনের সভাপতিত্বে শিল্পকলা একাডেমিতে অনুষ্ঠিত আলোচনাসভায় প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক মো. শাহাবুদ্দিন খান। বক্তব্য দেন ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার আমিনুল ইসলাম, পৌর মেয়র মির্জা সাখাওয়াতুল আলম মনি, সৈয়দ আতিকুর রহমান ছানা, হাবিবুর রহমান হবি, ছানোয়ার হোসেন ছানু, ফারহান আহাম্মেদ, নজরুল ইসলাম, জয়ন্তী কৈরি প্রমুখ।

রাজবাড়ী : সকালে কালেক্টরেট চত্বর থেকে বের করা হয় বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা। শোভাযাত্রাটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আলোচনাসভায় মিলিত হয়। জেলা প্রশাসক জিনাত আরার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য দেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফকির আব্দুল জব্বাব, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) রেবেকা সুলতানা, রাজবাড়ীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. আজাদ রহমান, রাজবাড়ীর পাট পরিদর্শক মীর সাহাদাত আলী প্রমুখ।

টাঙ্গাইল : টাঙ্গাইল শহরের বিবেকানন্দ স্কুল অ্যান্ড কলেজ প্রাঙ্গণ থেকে শোভাযাত্রা বের হয়ে শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। শোভাযাত্রা শেষে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক মাহবুব হোসেন। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মুহাম্মদ আনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য দেন জেলা পাট উন্নয়ন কর্মকর্তা শামীম আল মামুন।

শেরপুর : জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে আলোচনাসভা ও পাট পণ্যের প্রদর্শনী করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক ড. মল্লিক আনোয়ার হোসেন। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক এ টি এম জিয়াউল ইসলামের সভাপতিত্বে এ সময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. সালাহউদ্দিন সিকদার, নুরল ইসলাম হিরু, জয়নাল আবেদীন প্রমুখ বক্তব্য দেন। আলোচনাসভা শেষে মোজাফফর বয়াতি ও তাঁর দল পাট পণ্যের ওপর বাউলগান পরিবেশন করেন।

ঝালকাঠি : সকালে ঝালকাঠি জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে থেকে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের হয়ে শহর প্রদক্ষিণ করে একই স্থানে এসে শেষ হয়। পরে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয় আলোচনাসভা। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. মানিকহার রহমানের সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক মো. মিজানুল হক চৌধুরী।

চুয়াডাঙ্গা : সকালে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে গিয়ে শেষ হয়। শোভাযাত্রায় নেতৃত্ব দেন জেলা প্রশাসক সায়মা ইউনুস, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো. আব্দুর রাজ্জাক।


মন্তব্য