kalerkantho

সড়কে ঝরল ৭ প্রাণ

প্রিয় দেশ ডেস্ক   

৬ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



ছয় জেলায় গতকাল রবিবার সড়ক দুর্ঘটনায় স্কুল ছাত্র, ব্যবসায়ীসহ সাতজন নিহত ও চারজন আহত হয়েছে।

চুয়াডাঙ্গা : চুয়াডাঙ্গা-আলমডাঙ্গা সড়কের আলমডাঙ্গার বন্ডবিল এলাকায় সকালে বাস-ভটভটির মুখোমুখি সংঘর্ষে দুজন নিহত ও একজন আহত হয়।

নিহতদের একজন ভটভটিচালক মনিরুল ইসলাম (২৮)। তিনি আলমডাঙ্গার খোরদ গ্রামের মিনারুল মণ্ডলের ছেলে। নিহত অন্যজনের নাম-পরিচয় জানা যায়নি। আহত আলমডাঙ্গার পারদুর্গাপুর গ্রামের মোহাম্মদ রিয়নের (১৫) অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা রাজিবুল ইসলাম। রিয়নকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

সখীপুর (টাঙ্গাইল) : সখীপুরের ভাতকুড়া মোড় এলাকায় ভোরে ট্রাকের সঙ্গে অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে কাঁচামাল ব্যবসায়ী জোনাব আলী (৪৫) নিহত হয়েছেন। তিনি উপজেলার যাদবপুর মধ্যপাড়া গ্রামের মৃত ওয়াহেদ আলীর ছেলে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, টাঙ্গাইল যাওয়ার পথে ভাতকুড়া মোড় এলাকায় ওই দুর্ঘটনায় জোনাব আলী গুরুতর আহত হন। পরে টাঙ্গাইল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তাঁর মৃত্যু হয়।

ফেনী : দুপুরে ফেনী শহরের রানীহাটের মালিপুর স্কুলের পাশে অটোরিকশার ধাক্কায় মোটরসাইকেল আরোহী মো. মোস্তাফা রুবেল (৩৩) নিহত হয়েছেন। তিনি ছাগলনাইয়া উপজেলার মাটিয়াগোদা গ্রামের এনামুল হক পাটোয়ারীর ছেলে।

গাজীপুর : কালীগঞ্জে দুপুরে ট্রাকচাপায় ওষুধ কম্পানি জেবিএলের রিপ্রেজেন্টেটিভ আনোয়ারুল ইসলাম (২৮) নিহত হয়েছেন। তিনি নীলফামারীর বাবরীঝাড় গ্রামের আমিনুল ইসলামের ছেলে। সূত্র জানায়, আনোয়ার টঙ্গী থেকে মোটরসাইকেলে করে ওষুধ নিয়ে কর্মস্থল কালীগঞ্জে ফিরছিলেন। পথে দুপুর ১২টার দিকে কালীগঞ্জ-টঙ্গী সড়কের শিমুলিয়ায় একটি ট্রাক তাঁকে চাপা দিয়ে দ্রুত পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থলেই তাঁর মৃত্যু হয়।

কেশবপুর (যশোর) : যশোর-সাতক্ষীরা সড়কের কেশবপুরের আলতাপোল তালতলায় বিকেলে ট্রাক-মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে মোটরসাইকেলচালক হাসান শেখ (২৫) নিহত হন। এ সময় হাসানের সহযোগী গুরুতর জখম হন। তিনি খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তাঁর অবস্থা আশঙ্কাজনক। পুলিশ জানায়, ট্রাকটি জব্দ করা হলেও চালক পালিয়ে গেছেন।

দাউদকান্দি (কুমিল্লা) : তিতাসে দুপুরে তিনটি সড়ক দুর্ঘটনায় এক স্কুল ছাত্র নিহত ও দুজন আহত হয়েছে। ঘটনা তিনটি ঘটে উপজেলার গৌরীপুর-হোমনা রোডের জেলা পরিষদ ডাকবাংলোর কাছে, কড়িকান্দি বাজারে ও গাজীপুর-জগত্পুর রোডে। নিহত শাহাদাৎ হোসেন (৮) গাজীপুর গ্রামের মো. সাহাবুদ্দিনের ছেলে ও গাজীপুর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র। আহতরা হলেন তিতাসের সাগরফেনা গ্রামের সাদির (৫০) ও হোমনার জয়পুর গ্রামের রোশনা বেগম (৫৫)।

সূত্র জানায়, বিদ্যালয় ছুটি শেষে শাহাদাৎ ঢাকা-হোমনা সড়ক পার হওয়ার সময় বেপরোয়া গতির একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা তাকে চাপা দেয়। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে তিতাস উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। রোশনা বেগমকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। সাদির তিতাস উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন।


মন্তব্য