kalerkantho


টঙ্গীর বন্ধ ক্যাপরি সিনেমা হলে রহস্যঘেরা আগুন

টঙ্গী (গাজীপুর) প্রতিনিধি   

২ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ থাকা টঙ্গীর ক্যাপরি সিনেমা হল গতকাল বুধবার ভোরে আগুনে পুড়ে গেছে। দমকল বাহিনীর কর্মীরা দীর্ঘক্ষণ চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন।

সিনেমা হলটির মালিক আহসানউল্লাহ মাস্টার এমপি হত্যা মামলার মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত হুকুমের আসামি নূরুল ইসলাম সরকার। হলটির মালিকানা নিয়ে নূরুল ইসলাম সরকারের সঙ্গে জনৈক শফিক উদ্দিন খোকনের দীর্ঘদিন ধরে মামলা চলছে। নাশকতার উদ্দেশ্যে পরিকল্পিতভাবে সিনেমা হলে আগুন দেওয়া হয়েছে বলে নূরুল ইসলাম সরকারের ছেলে সরকার শাহনূর ইসলাম রনি অভিযোগ করেছেন।

জানা গেছে, মঙ্গলবার রাতে ক্যাপরি সিনেমা হলের ভেতর অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়। খবর পেয়ে টঙ্গী দমকল বাহিনীর কর্মীরা দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে দীর্ঘক্ষণ চেষ্টায় আগুন নেভাতে সক্ষম হলেও ততক্ষণে হলের পর্দা, আসবাব, সিলিং, টিনের চালাসহ ভেতরে রক্ষিত সব জিনিস পুড়ে যায়। অগ্নিকাণ্ডের কারণ সম্পর্কে টঙ্গী ফায়ার স্টেশনের সিনিয়র স্টেশন অফিসার মোহাম্মদ আতিকুর রহমান বলেন, তদন্ত ছাড়া অগ্নিকাণ্ডের সঠিক কারণ বলা যাচ্ছে না। তবে মাদকসেবীদের হেরোইন অথবা গাঁজা সেবনের আগুন থেকে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হতে পারে। কারণ সিনেমা হলটি টঙ্গীর প্রধান মাদক স্পট ব্যাংকের মাঠ বস্তির সামনে অবস্থিত। টঙ্গী থানার এসআই আশ্রাফুল ইসলাম বলেন, অগ্নিকাণ্ডের খানিক আগে দুটি প্রাইভেট কার সিনেমা হলের সামনে দাঁড়িয়ে ছিল।

গাড়ি দুটি চলে যাওয়ার পরক্ষণেই সিনেমা হলে আগুন ধরে যায়। তবে সিনেমা হলের দেয়ালের ফাঁক দিয়ে মাদকসেবীরা নিয়মিত ভেতরে ঢুকে নিরাপদে মাদক সেবন করে থাকে। হলের মালিক নূরুল ইসলাম সরকারের ছেলে সরকার শাহনূর ইসলাম রনি জানান, ২০০৪ সাল থেকে সিনেমা হলে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে। এর আগে তাঁরা নিয়মিত বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করতেন। বিদ্যুবিহীন হলে নাশকতার উদ্দেশ্যে আগুন দেওয়া হয়েছে বলে তিনি অভিযোগ করেন। এ ব্যাপারে টঙ্গী মডেল থানায় সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে।


মন্তব্য