kalerkantho


নিজ গর্ভে থাকা শিশুকেও বিক্রি!

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি   

২ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



নিজ গর্ভে থাকা শিশুকেও বিক্রি!

নিজ সন্তানকে বিক্রির মতো লোমহর্ষক ঘটনা উদ্ঘাটনসহ শিশু চুরি ও কেনার অভিযোগে তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছেন র্যাব-১১ সদস্যরা। উদ্ধার করা হয়েছে চুরি হওয়া এক শিশুকেও।

গতকাল বুধবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জের আদমজীতে অবস্থিত র্যাব-১১-এর সদর দপ্তরে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান র‍্যাব-১১-এর সিনিয়র এএসপি আলেপউদ্দিন।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলার ফরাজিকান্দা এলাকার মিনারা ওরফে তানিয়া (৪০), সদর উপজেলার ফতুল্লার মাসুম (৩০) ও মৌসুমী (২১)। এ চক্রের সদস্য আল আমিন (২৮) ও তার স্ত্রী সালমা (২২) পলাতক।

সংবাদ সম্মেলনে সিনিয়র এএসপি আলেপউদ্দিন জানান, গত ২২ ফেব্রুয়ারি ঢাকার শাহ আলী থানা এলাকার বাসিন্দা সেতু বেগম র্যাব-১১-এর কাছে তাঁর আট মাসের মেয়ে মরিয়মের নিখোঁজের অভিযোগ দেন। পরে র্যাব তদন্ত করে নিশ্চিত হয়, এ ঘটনায় জড়িতরা নারায়ণগঞ্জে অবস্থান করছে। গত মঙ্গলবার রাত পৌনে ১২টার দিকে ফতুল্লা ও বন্দরে অভিযান চালিয়ে শিশু মরিয়মকে উদ্ধার এবং মাসুম, তানিয়া ও মৌসুমীকে গ্রেপ্তার করে র্যাব। গ্রেপ্তারকৃতরা জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছে, তারা মরিয়মকে চুরি ও বিক্রির সঙ্গে জড়িত। তারা জানিয়েছে, মরিয়ম ঢাকার মিরপুরে যে বাসায় থাকে তার পাশের বাসায় বাস করে সালমা ও আল আমিন দমপতি। গত ১৯ ফেব্রুয়ারি তারা মরিয়মকে তাদের (মরিয়ম) ঘর থেকে চুরি করে।

আল আমিন তার বোন মিনারা ওরফে তানিয়ার মাধ্যমে মরিয়মকে নিঃসন্তান মাসুম ও তাঁর স্ত্রী মৌসুমীর কাছে ১৫ হাজার টাকায় বিক্রি করে দেয়।

জিজ্ঞাসাবাদে মিনারা ওরফে তানিয়া জানায়, তার ভাই আল আমিনের স্ত্রী পলাতক সালমা তার নিজের সন্তানকেও প্রায় আট মাস আগে সাত মাস গর্ভে থাকা অবস্থায় ৩০ হাজার টাকায় বিক্রি করে দেয়।

শিশু মরিয়মের মা সেতু বেগম র‍্যাবকে জানান, তাঁর স্বামী বিল্লাল হোসেন (৩৬) মাদকাসক্ত। এর আগে তাঁর তিনটি সন্তান নিখোঁজ হয়েছে। প্রথমটি পাঁচ বছর বয়সে নিখোঁজ হয়। সৌরভ নামের সন্তান নিখোঁজ হয় পাঁচ মাস বয়সে। তখন সেতু জানতে পারেন, সৌরভকে সেতুর স্বামী বিল্লালের মাধ্যমে রোকন নামের পাশের বাসার ভাড়াটিয়া চুরি করে নিয়ে যায়। বর্তমানে সৌরভ রোকন ও তার স্ত্রীর সঙ্গে কুষ্টিয়ায় আছে। পরে সেতুর ঘরে জন্ম নেয় শারমিন। শারমিনের বয়স যখন ১১ মাস তখন সেতুর সঙ্গে তাঁর শাশুড়ির পারিবারিক কলহ হয়। এর জেরে তাঁদের পরিচিত সুলতানা নামের এক নারী শারমিনকে অপহরণের পর হত্যা করে শাহবাগ থানা এলাকায় একটি ডাস্টবিনে ফেলে রাখে। পুলিশ সুলতানাকে গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে পাঠায়। চতুর্থ সন্তান মরিয়মের জন্মের পর সেতুর সঙ্গে তাঁর স্বামীর ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়।

সিনিয়র এএসপি আলেপ জানান, মরিয়ম অপহরণ ও বিক্রির সঙ্গে জড়িত অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারের জন্য র‍্যাবের অভিযান চলছে।

রূপগঞ্জে একই পরিবারের তিনজনকে কুপিয়ে জখম

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে একই পরিবারের তিনজনকে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। গতকাল বুধবার সকালে উপজেলার মুড়াপাড়া ইউয়িনের ব্রাহ্মণগাঁও এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহত নার্গিস বেগম জানান, তাঁর পালিত মুরগির বাচ্চাগুলো আছিয়া বেগমের বাড়িতে যাওয়া নিয়ে কথা-কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে আছিয়া বেগম, পারভীন, নবীর হোসেন, রোকসানা, এমরান মিলে নার্গিস বেগমকে কুপিয়ে জখম করে। নার্গিস বেগমের ডাক-চিৎকারে সূর্যবান বেগম, রোকেয়া বাঁচাতে এগিয়ে এলে তাঁদেরও কুপিয়ে জখম করা হয়। পরে তাঁদের চিৎকার শুনে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে তারা পালিয়ে যায়।


মন্তব্য