kalerkantho


নগরকান্দায় কৃষক হত্যা ঘাতকের বাড়িতে হামলা

তিন স্থানে আরো এক খুন, দুই লাশ

প্রিয় দেশ ডেস্ক   

২ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



ফরিদপুরের নগরকান্দায় কৃষককে পিটিয়ে মারা হয়েছে। এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ লোকজন ঘাতকের বাড়িতে ভাঙচুর চালায়। যশোরে সোনালী ব্যাংকের সাবেক কর্মচারীকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। অন্যদিকে ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ ও নীলফামারীর ডোমারে দুজনের লাশ পাওয়া গেছে। বিস্তারিত নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে :

যশোর : সোনালী ব্যাংকের সাবেক কর্মচারী রেজাউল ইসলামকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। গত মঙ্গলবার রাতে শহরতলির ঘুরুলিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি মোটরসাইকেল উদ্ধার করেছে। রেজাউলের পকেট থেকে উদ্ধার করা হয়েছে সোনালী ব্যাংকের দুটি ব্ল্যাংক চেক। কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি ইলিয়াস হোসেন জানান, খুনের কারণ উদ্ঘাটনের চেষ্টা চলছে।

ফরিদপুর : নগরকান্দা উপজেলার তারাকান্দি গ্রামে গত মঙ্গলবার রাতে কৃষক মোশাররফ হোসেনকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় বিক্ষুব্ধ গ্রামবাসী ঘাতক দেলোয়ার হোসেনের বাড়িতে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করে।

মোশাররফ একই গ্রামের মোকসেদ শেখের (মৃত) ছেলে। পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার সকালে গরুকে দিয়ে ক্ষেতের ফসল খাওয়ানোর ঘটনাকে কেন্দ্র করে মোশাররফের ছেলের সঙ্গে প্রতিবেশী দেলোয়ারের ছেলের তর্ক-বিতর্ক হয়। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে দেলোয়ার রাতে মোশাররফকে তাঁর বাড়ির সামনে ডেকে এনে লাঠি দিয়ে বেধড়ক পিটিয়ে পালিয়ে যায়। আহত মোশাররফকে উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে গ্রামবাসী দেলোয়ারের বাড়ি ভাঙচুর করে। নগরকান্দা থানার ওসি এ এফ এম নাসিম বলেন, বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত। মোশাররফের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) : ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার মিরাজ আলীর রাইস মিলের বারান্দা থেকে অজ্ঞাতপরিচয় বৃদ্ধার লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তিনি মানসিক ভারসাম্যহীন ছিলেন বলে এলাকার লোকজন জানিয়েছে। গতকাল বুধবার দুপুরে তাঁর লাশ উদ্ধারের পর ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।  

নীলফামারী : ডোমার উপজেলার মৌজা গোমনাতীতে ভুট্টাক্ষেত থেকে গতকাল বুধবার সকালে তৃতীয় লিঙ্গের ব্যক্তির গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তাঁর পরিচয় পাওয়া যায়নি। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে।


মন্তব্য