kalerkantho


মাদক ব্যবসায় বাধা দেওয়ার জের

সোনারগাঁয় হাঙ্গামা ভাঙচুর, আহত ১০

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি   

১ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার হামছাদী গ্রামে গতকাল মঙ্গলবার গ্রামবাসীর সঙ্গে মাদক ব্যবসায়ীদের দফায় দফায় সংঘর্ষ, ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। তাতে কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছে।

এ বিষয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ জানানো হয়েছে।

এলাকাবাসী ও পুলিশ জানায়, উপজেলার বৈদ্যের বাজার ইউনিয়নের উলুকান্দি আনোয়ার হোসেন ওরফে আনার, তাওলাদ হোসেন ও কালু মিয়া দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় মাদক ব্যবসা করে আসছিল। হামছাদী গ্রামের কয়েক যুবক তাদের মাদক ব্যবসায় বাধা দেয়। এ নিয়ে দুই পক্ষে কথা-কাটাকাটি হয়। এর জের ধরে মাদক ব্যবসায়ীরা সাতজনকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে জখম করে। তা ছাড়া এ সময় কমপক্ষে ১০-১২টি বাড়িতে হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাট চালায় তারা। পরে মসজিদের মাইকে ঘোষণা শুনে ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী মাদক ব্যবসায়ী আনোয়ার হোসেন, তাওলাদ হোসেন ও সাইফুল ইসলামকে মারধর করে।

এদিকে আহতদের উদ্ধার করে সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মারধরের শিকার মোসলেম মিয়া ও প্রিন্স হোসেন বলেন, ‘মাদক ব্যবসায় বাধা দেওয়ায় আমাদের মারধর করা হয়েছে।

এ ছাড়া বাড়িঘরে হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাট চালানো হয়েছে। তাতে প্রায় ২০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। ’

তবে যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে, সেই আনোয়ার হোসেন ও তাওলাদ মিয়ার দাবি, বিনা অপরাধে তাদের পিটিয়ে আহত করা হয়েছে।

সোনারগাঁ থানার ওসি মঞ্জুর কাদের জানান, এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ নেওয়া হয়েছে। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।  


মন্তব্য