kalerkantho


সোনারগাঁয় ফসলি জমির মাটি লুট, বিক্ষোভ

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি   

২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



সোনারগাঁয় ফসলি জমির মাটি লুট, বিক্ষোভ

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁর ফতেহপুর এলাকার ফসলি জমির মাটি এভাবেই কেটে নিয়ে যাচ্ছে দুর্বৃত্তরা ছবি : কালের কণ্ঠ

সোনারগাঁর মারুবদী ও ফতেপুর গ্রামের পাশ থেকে কৃষকদের ফসলি জমির মাটি জোর করে কেটে নিয়ে যাচ্ছেন যুবলীগ নেতারা। সোমবার দুপুরে কয়েক শ কৃষক একত্রিত হয়ে তাদের জমি থেকে মাটি কেটে নেওয়ার প্রতিবাদে ফতেপুর এলাকায় বিক্ষোভ করেছে।

পরে উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ করে এলাকাবাসী।

এলাকাবাসী জানায়, উপজেলার সনমান্দী ইউনিয়নের ফতেপুর ও মারুবদী গ্রামের পাশের বিলে কৃষকদের রবি শস্যসহ ৫০০ বিঘা জমি রয়েছে। এসব জমিতে ফসল ফলিয়ে তারা সারা বছর জীবিকা নির্বাহ করত। কিন্তু সম্প্রতি স্থানীয় যুবলীগ নামধারী নেতা আমিনুল ইসলাম আমান, দেলোয়ার হোসেন, রমজান মিয়া কাইউম মিয়া, আফাজ উদ্দিন, মনির সিকদার, সওকত মিয়াসহ একটি সিন্ডিকেট কৃষকদের ফসলি জমির মাটি ভেকু দিয়ে লুট করে নিয়ে যাচ্ছে। তাদের ভয়ে সাধারণ কৃষকরা মুখ খুলতে সাহস পাচ্ছে না। এক মাস ধরে কৃষকদের ফসলি জমির মাটি কোনোভাবেই বন্ধ করতে না পেরে মাটি কাটার প্রতিবাদে সোমবার দুপুরে কয়েক শ কৃষক বিক্ষোভ মিছিল করে সোনারগাঁ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ করে। অভিযোগের ব্যাপারে জানতে চাইলে যুবলীগ নেতা নেতা আমিনুল ইসলাম আমান ও দেলোয়ার হোসেন বলেন, ‘আমরা কৃষকদের ন্যায্য মূল্য দিয়েই মাটি কিনে তা কেটে নিচ্ছি। ’ সোনারগাঁ উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক আলী হায়দার বলেন, ‘আমিনুল ইসলাম আমান ও দোলোয়ার হোসেন নামের আমাদের যুবলীগের কমিটিতে কেউ নেই। ’

সনমান্দী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহিদ হাসান জিন্নাহ বলেন, যেভাবে কৃষকদের ফসলি জমির মাটি লুট করে নিয়ে যাচ্ছে, দেখলে মনে হয় প্রশাসন বলতে কিছুই নেই।

আগামী সাত দিনের মধ্যে অবৈধ মাটি কাটা বন্ধ করা না হলে কৃষকদের নিয়ে বড় ধরনের কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।

সোনারগাঁ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শাহিনুর ইসলাম বলেন, ‘ওই এলাকার প্রভাবশালী ব্যক্তিরা কৃষকদের ফসলি জমির মাটি কেটে ইট ভাটায় বিক্রি করছে বলে অভিযোগ পেয়েছি। অবৈধভাবে কৃষকদের ফসলি জমির মাটি যাতে কেটে নিতে না পারে সে জন্য মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হবে। ’

এ ব্যাপারে স্থানীয় সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকা বলেন, কৃষকের ফসলি জমির মাটি কেটে নেওয়ার বিষয়ে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। অবৈধ ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে স্থানীয় প্রশাসনকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।


মন্তব্য