kalerkantho


মহেশখালীতে অস্ত্র ও ইয়াবা ব্যবসায়ী বাবা-মেয়ে গ্রেপ্তার

বিভিন্ন স্থানে আরো ১৯ জন ধরা

প্রিয় দেশ ডেস্ক   

২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



কক্সবাজারের মহেশখালীতে অস্ত্র ও ইয়াবা ব্যবসায়ী বাবা-মেয়েকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। অন্যদিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া, রাজবাড়ী, কুড়িগ্রাম, নওগাঁর ধামইরহাট ও যশোরের মণিরামপুরে বিভিন্ন মামলার ছয় আসামিসহ আরো ১৯ জনকে ধরেছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা। কক্সবাজার : মহেশখালী দ্বীপের অস্ত্র ও ইয়াবা ব্যবসায়ী বাবা হামিদুর রহমান ও তার মেয়ে সুখিয়ারা বেগম ওরফে শুক্কুনিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল রবিবার ভোরে নিজ বাড়ি থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় হামিদুরের ঘরে তল্লাশি চালিয়ে তিনটি দেশীয় বন্দুক, পাঁচ রাউন্ড তাজা কার্তুজ ও ৯০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। আর তার মেয়ে শুক্কুনির কাছে পাওয়া গেছে আরো ২০০ পিস ইয়াবা। বাবা-মেয়েকে থানায় নেওয়ার পথে ছিনিয়ে নিতে তাদের সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে বেশ কয়েক রাউন্ড গুলি ছোড়ে। এ সময় আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছোড়ে পুলিশ। গোলাগুলির ঘটনায় মহেশখালী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ফখরুল আহমদ মিনহাজ ও মনির হোসেন, সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) সজীব দত্ত ও কনস্টেবল রুবেল শর্ম্মা আহত হয়েছেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া : মামলার ভয় দেখিয়ে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে টাকা দাবির ঘটনায় কসবা উপজেলার চৌমুহনী এলাকা থেকে গত শনিবার রাতে দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তারা হলো মিঠু ও শরীফুজ্জামান।

এ ঘটনায় উপজেলার চৌবেপুর গ্রামের হেলাল উদ্দিন থানায় মামলা করেছেন। গতকাল রবিবার গ্রেপ্তারকৃতদের আদালতে পাঠিয়ে পাঁচ দিনের রিমান্ড আবেদন করেছে পুলিশ। এর আগে শনিবার বিকেলে নবীনগর উপজেলার বাইশমৌজা এলাকা থেকে দেশীয় অস্ত্রসহ দুই নৌ ডাকাত মো. জুয়েল ও শুক্কুর মিয়াকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। একই দিন বিকেলে সরাইল উপজেলার বৈশামুড়া এলাকায় ৭০ কেজি গাঁজাসহ বিজিবির হাতে ধরা পড়েছে মো. ফখরু।

মণিরামপুর (যশোর) : মণিরামপুরের বিভিন্ন মামলার পরোয়ানাভুক্ত পাঁচ আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গত শনিবার রাতে উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। তারা হলো রফিকুল ইসলাম, গিয়াস উদ্দীন, শহিদুল ইসলাম, আসলাম হোসেন ও মিজানুর রহমান।

নওগাঁ : ধামইরহাট উপজেলায় গত শনিবার রাতে ২০০ পিস ইয়াবাসহ মাদক মামলার আসামি শারমিন বেগমকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। শারমিন চানকুড়ি গ্রামের আইয়ুব আলীর স্ত্রী।  

রাজবাড়ী : জেলার পৃথক স্থান থেকে ২০ লিটার চোলাই মদ ও ১০ পিস ইয়াবাসহ মাদক ব্যবসায়ী মো. সাঈদ, হামিম শেখ, তপন কুমার দাস এবং মাদকসেবী লিটন হোসেন ও আইয়ুব ব্যাপারীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

কুড়িগ্রাম : সদর ও উলিপুর উপজেলার বিভিন্ন স্থানে গত শনিবার রাতে অভিযান চালিয়ে চার মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে পুলিশ।


মন্তব্য