kalerkantho


ধর্ষকের সঙ্গে অন্তঃসত্ত্বার বিয়ে

মুরাদনগর (কুমিল্লা) প্রতিনিধি   

২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার নবীপুর পূর্ব ইউনিয়নে আট মাসের অন্তঃসত্ত্বা প্রতিবন্ধী সেই কিশোরীর (১৫) গতকাল শনিবার বিয়ে হয়েছে ধর্ষকের সঙ্গে।

গত ১৯ ফেব্রুয়ারি কালের কণ্ঠ ‘সালিসে ডিএনএ পরীক্ষার রায়!’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ করে। এতে সতর্ক হন স্থানীয় সালিসকারীরা। গতকাল অভিযুক্ত কাদের (২৩) অপরাধ স্বীকার করে পাঁচ লাখ টাকা কাবিন দিয়ে স্বেচ্ছায় বিয়ে করেন।

কাদের বলেন, ‘পত্রিকায় প্রকাশের পর স্থানীয় প্রশাসন ও ইউনিয়ন পরিষদ থেকে চাপ দেয় আমার পরিবারকে। তা ছাড়া বিবেকের কাছে চরম অপরাধী হয়ে পড়ি। আমি গর্ভের সন্তানের বাবা। সেই শিশু পৃথিবীর আলো দেখার আগেই পিতৃপরিচয় নিশ্চিত করতে চেয়েছি। ’ মেয়েটি বলে, ‘আমার একটা গতি হয়েছে। আমার জন্য দোয়া করবেন। ’ নবীপুর পূর্ব ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কাজী আবুল খায়ের বলেন, ‘কাদেরের ভুল ভেঙেছে।

সে বিয়ে করেছে। ’ ১৫ বছরের মেয়ের বিয়ে কিভাবে নথিভুক্ত হলো, তা জানতে কাজী সিরাজুল ইসলামের মোবাইল ফোনে একাধিকবার কল করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি। মুরাদনগর থানার ওসি এস এম বদিউজ্জামান বলেন, ‘খবর প্রকাশের পর অনেকটা চাপের মুখে ছেলেটি মেয়েকে বিয়ে করেছে। এখন আর কোনো আইনি জটিলতা নেই। ’

এ বিষয়ে কুমিল্লা জজ আদালতের সহকারী সরকারি কৌঁসুলি (এপিপি) সৈয়দ তানভীর আহমেদ ফয়সাল বলেন, ‘ধর্ষণ আপসযোগ্য না। কিন্তু, মানবিক স্বার্থে ও সামাজিক প্রয়োজনে এটি আপস করা যেতে পারে। ’


মন্তব্য