kalerkantho


ফুলবাড়ীতে নির্যাতন চালিয়ে যুবককে হত্যা, গ্রেপ্তার ১

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি   

২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে নির্যাতন চালিয়ে শহিদুল ইসলাম (৩৮) নামের একজনকে হত্যা করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার ভোরে ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় তাঁর।

এ ঘটনায় আজিজুল নামের একজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শহিদুল উপজেলার পূর্ব ফুলমতি গ্রামের এরশাদ আলীর ছেলে। পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, শহিদুলকে উপজেলার গোরকমণ্ডল এলাকার মাদক ব্যবসায়ী নুর হোসেন, আজিজুল ইসলামসহ অজ্ঞাতপরিচয় একজন বুধবার রাত ৮টার দিকে গোরকমণ্ডলের হিন্দুদের অষ্টপ্রহর অনুষ্ঠান থেকে তুলে নিয়ে যায়। তারা ধরলার চরাঞ্চলের ভুট্টাক্ষেতে নিয়ে নির্যাতন করে সেচপাম্প চুরির স্বীকারোক্তি আদায়ের চেষ্টা চালায়। শহিদুলের দুই পায়ের হাঁটুর নিচে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপায় ও প্লাস দিয়ে ডান পায়ের বৃদ্ধাঙ্গুলি থেঁতলে দেয়। পরে তারা শহিদুলের মৃত্যু হয়েছে মনে করে তাঁকে ভুট্টাক্ষেতের পাশের জর্জি মিয়ার বাড়ির উঠানে ফেলে চলে যায়। বৃহস্পতিবার সকালে স্থানীয় লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে নেয়।

শহিদুলের বৃদ্ধা মা সুফিয়া বলেন, ‘তারা আমার ছেলেকে মিথ্যা অপবাদ দিয়ে নির্মমভাবে হত্যা করেছে। ’

ফুলবাড়ী হাসপাতালের চিকিৎসক মো. এখতেখারুল ইসলাম জানান, শহিদুলের গায়ে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

ফুলবাড়ী থানার ওসি এ বি এম রেজাউল ইসলাম জানান, থানায় একটি হত্যা মামলা হয়েছে এবং একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।


মন্তব্য