kalerkantho


কালিয়াকৈরে শিক্ষকের বাসায় সরকারি বই

কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি   

২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



গাজীপুরের কালিয়াকৈরের টেকিবাড়ী চানপুর এলাকার একজন মাদরাসা শিক্ষকের বাসায় সরকারি বই পাওয়া গেছে। ভুয়া চাহিদাপত্র দিয়ে অসৎ উদ্দেশ্যে বইগুলো শিক্ষকের বাসায় রাখা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ওই মাদ্রাসায় পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত পাঠদান থাকলেও ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণির বেশ কিছু বই ওই শিক্ষকের বাসা থেকে গতকাল বুধবার বিকেলে জব্দ করে পুলিশ। অভিযুক্ত শিক্ষককে আটক করে থানায় এনে মুচলেকার পর এক ব্যবসায়ীর জিম্মায় ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

সূত্র জানায়, উপজেলার টেকিবাড়ী চানপুরে ২০১৫ সালে লিয়াকত আছিয়া খাতুন নামের একটি দাখিল মাদরাসা স্থাপন করেন রফিকুল ইসলাম। এর ছাত্রছাত্রী ২৫ জন ও শিক্ষক চারজন। মাদরাসাটিতে প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত পাঠদান করালেও প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসে ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণি পর্যন্ত বইয়ের ভুয়া চাহিদাপত্র দিয়ে মাধ্যমিকের ২৫০ সেট ও ভোকেশনালের ৫০ সেট বই নিয়ে তাঁর বাসায় রেখে দেন। বিষয়টি জানার পরে কালিয়াকৈর থানার এএসআই জাকির হোসেন রফিকুল ইসলামের বাসায় অভিযান চালিয়ে সরকারি ওই বইগুলো জব্দ করেন। পরে ওই বাসায় বইগুলো রেখে রফিকুল ইসলামকে থানায় নিয়ে আসেন।

মাদরাসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও শিক্ষক রফিকুল ইসলাম বলেন, ‘আমার মাদরাসায় প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত পাঠদান করা হয়। মাধ্যমিক শাখার বই আমার মাদরাসায় দরকার নেই।

বইগুলো উপজেলা মাধ্যমিক শাখায় আমি ফেরত দেব। ’

উপজেলা মাধ্যমিক সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা নাদের আহম্মেদ বলেন, বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

কালিয়াকৈর থানার ওসি মো. মোতালেব মিয়া বলেন, বইয়ের বিষয়ে শিক্ষা কর্মকর্তাকে জানানো হয়েছে।

কালিয়াকৈর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ সানোয়ার হোসেন বলেন, ‘বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য মাধমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে নির্দেশ দিয়েছি। ’


মন্তব্য