kalerkantho


সদরপুরে ৬৩ গরুসহ ট্রলার লুট

নিজস্ব প্রতিবেদক, ফরিদপুর   

২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



ফরিদপুরের সদরপুরের আকটেরচর ইউনিয়নের কুয়ারাম সরকারেরডাঙ্গির পদ্মা নদীতে গত মঙ্গলবার রাতে ৬৩টি গরুসহ দুটি ট্রলার লুট করেছে ডাকাতরা। এ সময় ট্রলারে থাকা গরু ব্যবসায়ী ও মাঝিদের মারধর করে টাকাও লুটে নেওয়া হয়।

ডাকাতদের গ্রেপ্তার ও গরু-ট্রলার উদ্ধারে পুলিশের একাধিক দল অভিযান চালাচ্ছে। দুটি ট্রলারে ৬৩টি গরু, আটজন মাঝি ও ছয়জন ব্যবসায়ী ছিলেন। এ ব্যাপারে সদরপুর থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

ট্রলারের মাঝি আকবর হোসেন ও রহম আলী বলেন, ‘গত মঙ্গলবার ফরিদপুরের টেপাখোলা হাট থেকে ছয় ব্যবসায়ী ৬৩টি গরু কেনেন। পরে ফরিদপুর শহরতলির সিঅ্যান্ড ঘাট থেকে দুটি ট্রলারে করে পদ্মা নদী দিয়ে চাঁদপুরের উদ্দেশে রওনা হন তাঁরা। ট্রলার দুটি মঙ্গলবার রাতে কুয়ারাম সরকারেরডাঙ্গি এলাকায় পৌঁছলে ৩০-৪০ জনের ডাকাতদল দুটি স্পিডবোটে করে এসে আগ্নেয়াস্ত্রের ভয় দেখিয়ে গরুবাহী ট্রলারটি দখলে নেয়। ডাকাতরা ট্রলারের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে ব্যবসায়ীসহ আমাদের ১৪ জনের হাত ও চোখ বেঁধে ফেলে প্রায় চার লাখ টাকা কেড়ে নিয়ে গোপালপুর ঘাট থেকে প্রায় তিন-চার কিলোমিটার দূরে পিয়াজখালীর আগে নারিকেলবাড়িয়া ইউনিয়নের শয়তানখালী এলাকার একটি চরে সবাইকে ফেলে রেখে  ট্রলারসহ গরু নিয়ে চলে যায়। ’

ফরিদপুরের পুলিশ সুপার (এসপি) সুভাষ চন্দ্র সাহা জানান, পুলিশের একাধিক দল লুট হওয়া গরু ও ট্রলার উদ্ধার এবং ডাকাতদলকে আটকে একযোগে অভিযানে নেমেছে।

আট শিক্ষার্থী বহিষ্কার

ফরিদপুরের বোয়ালমারীর সাতৈর উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনায় আট শিক্ষার্থীকে বিদ্যালয় থেকে তিন মাসের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে।

গত মঙ্গলবার বিকেলে স্কুলের শিক্ষক ও বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্যদের যৌথ সভা শেষে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. ইয়াকুব আলী চৌধুরী জানান, গত রবিবার টিফিনের সময় বিদ্যালয় মাঠে দশম শ্রেণির ছাত্র হামিম ফকির, আশরাফসহ কয়েকজন দাঁড়িয়ে ছিল। এ সময় তাদের সঙ্গে নবম শ্রেণির ছাত্র খালিদের ধাক্কা লাগার অজুহাতে কথা-কাটাকাটি ও হাতাহাতি হয়।


মন্তব্য