kalerkantho

যাবজ্জীবন

নিজস্ব প্রতিবেদক, গাজীপুর   

২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



গাজীপুরে ডাকাতি মামলায় এক ব্যক্তিকে যাবজ্জীবন ও পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরো এক মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। রবিবার দুপুরে গাজীপুরের জেলা ও দায়রা জজ এ কে এম এনামুল হক ওই রায় দেন। দণ্ড পাওয়া রুবেল শামা (২৮) সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলার কাঁঠালবাড়ি ভোগড়া বাজার গ্রামের মোক্তার হোসেনের ছেলে। সে বর্তমানে পলাতক। আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১২ সালের ৮ নভেম্বর রাতে শ্রীপুর উপজেলার ভাংনাহাটি গ্রামের আবদুস সোবহানের বাড়িতে হানা দেয় রুবেল শামাসহ ৯ সদস্যের একদল ডাকাত। তারা দরজা ভেঙে ঘরে ঢোকে। ওই ঘরে গৃহকর্তার ভাতিজা মোস্তফা কামাল ঘুমিয়েছিলেন। ডাকাতরা মোস্তফার গলায় ছুরি ধরে জিম্মি করে। এদিকে দরজা ভাঙার শব্দ পেয়ে আশপাশের লোকজন জড়ো হয়ে ধাওয়া করলে ডাকাতরা দুটি হাতবোমা ফাটায়। বোমা দুটি বিকট শব্দে বিস্ফোরিত হলে মোস্তফা কামাল (৩৮) ভয়ে হার্ট অ্যাটাকে মারা যান। ডাকাতদের হামলায় সোবহানের বড় ভাই সিদ্দিকুর রহমান আহত হন।

এ ঘটনায় সোবহান বাদী হয়ে শ্রীপুর থানায় মামলা করেন। পুলিশ তদন্ত শেষে শামাসহ ৯ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দেয়। ২০১৫ সালের ৫ সেপ্টেম্বর আসামিদের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করা হয়। পরে ১০ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আদালত রুবেল শামাকে দোষী সাব্যস্ত করে এ রায় দেন। বাকি আসামিদের বেকসুর খালাস দেওয়া হয়েছে।


মন্তব্য