kalerkantho


রায়পুরে চাষির বাড়িতে হামলা লুট, আহত ৬

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি   

১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে জমি নিয়ে বিরোধে প্রতিপক্ষ কৃষক সিরাজ সর্দারের বসতবাড়ি ভাঙচুর ও মালপত্র লুট করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ সময় বাধা দিতে গিয়ে নারীসহ ছয়জন আহত হন। গতকাল শনিবার দুপুরে উপজেলার মধ্য উদমারা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও স্থানীয় ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও লুটে নেওয়া কিছু মালপত্র জব্দ করেছে পুলিশ।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়রা জানায়, মধ্য উদ্মারা গ্রামের কৃষক সিরাজ সর্দারের সঙ্গে একই গ্রামের মাদ্রাসা শিক্ষক মফিজুর রহমানদের ২৭ শতাংশ জমির মালিকানা বিরোধ রয়েছে। এ নিয়ে লক্ষ্মীপুর আদালতে পাল্টাপাল্টি মামলা চলছে। গতকাল দুপুরে মফিজুরের ভাই আলাউদ্দিন লোকজন নিয়ে সিরাজের জমিতে গাছ থেকে নারিকেল পাড়তে আসেন। সিরাজ ও তাঁর পরিবারের সদস্যরা বাধা দিলে তারা লাঠিসোঁটা নিয়ে অতর্কিত হামলা চালায়। এতে সিরাজ সর্দার, তাঁর স্ত্রী বেগম, ছেলে মাঈন উদ্দিন, মো. সুমন, মেয়ে পপি ও রহিমা আক্তার আহত হন। পরে তারা দলবলে সিরাজের বসতঘরে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাঙচুর করে মালপত্র লুটে নেয়।

মফিজুর রহমান হায়দরগঞ্জ তাহেরিয়া ফাযিল মাদ্সার এবতেদায়ি বিভাগের প্রধান। কৃষক সিরাজ সর্দার বলেন, ‘হামলাকারীরা আমার ঘরে থাকা টাকা, স্বর্ণালংকারসহ চার লাখ টাকার মালপত্র নিয়ে গেছে। এ বিষয়ে আমি আইনি ব্যবস্থা নেব। ’

বক্তব্য জানতে মফিজুর রহমানের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাঁকে পাওয়া যায়নি। মফিজুরের এক আত্মীয় বলেন, ‘আমাদের জমি থেকে নারিকেল পাড়তে গেলে সিরাজ ও তাঁর পরিবারের লোকজন বাধা দেন। তাঁরা আমাদের মারধর করেছেন। ’ হায়দরগঞ্জ পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক (এসআই) মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়। সেখানে কাউকে পাওয়া যায়নি। তবে পথে বসতঘরের কিছু মাল জব্দ করা হয়েছে। এ ঘটনায় অভিযোগ করলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


মন্তব্য