kalerkantho


ভ্রাম্যমাণ আদালত

বাল্যবিয়ের বরসহ তিন ব্যক্তিকে কারাদণ্ড

প্রিয় দেশ ডেস্ক   

১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



কুমিল্লার লাকসামে গত শুক্রবার বিকেলে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেয়েছে এক দাখিল পরীক্ষার্থী (১৫)। আর বাল্যবিয়ের চেষ্টার অপরাধে বর খলিলুর রহমান নান্টুকে (২৯) ১৫ দিনের কারাদণ্ড দিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. রফিকুল হকের ভ্রাম্যমাণ আদালত। মাদারীপুরে গতকাল শনিবার এক টন জাটকাসহ আটক দুজনকে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। একই দিন পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় কৃষিজমি নষ্ট করে ইটভাটা গড়ে তোলায় ভাটার মালিককে অর্থদণ্ড দিয়েছেন আদালত। কালের কণ্ঠ’র প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

কুমিল্লা (দক্ষিণ) : স্থানীয় ও পুলিশ সূত্র জানায়, শুক্রবার লাকসামের আজগরা ইউনিয়নের ওই পরীক্ষার্থীর সঙ্গে পাশের নাওটি গ্রামের মৃত হাছান আলীর ছেলে খলিলুর রহমান নান্টুর বাল্যবিয়ে হচ্ছিল। সংবাদ পেয়ে ইউএনও রফিকুল হক, উপজেলা মহিলা ও শিশুবিষয়ক কর্মকর্তা ফাতেমা জোহরা ও লাকসাম থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আবু হেনা মোস্তফা কামাল বিয়েবাড়িতে অভিযান চালিয়ে বরকে আটক করেন।

গতকাল লাকসাম থানার ওসি আবদুল্লাহ আল মাহফুজ জানান, দণ্ডিতকে আজ (গতকাল) সকালে কুমিল্লা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

মাদারীপুর : সাত দিন করে কারাদণ্ড ও পাঁচ হাজার টাকা করে অর্থদণ্ডপ্রাপ্ত দুজন হলেন মণিরামপুরের মোহনপুর গ্রামের রেজাউল ইসলাম ও তপন দাস। ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক রুম্পা শিকদার এ দণ্ড দেন। র‌্যাব-৮-এর মাদারীপুর ক্যাম্পের কমান্ডিং অফিসার বিমল চন্দ্র কর্মকার জানান, পিকআপ ভ্যানে জাটকা নিয়ে আসছে—এমন সংবাদে গতকাল মাদারীপুর শহরের চৌরাস্তায় অভিযান চালানো হয়। এ সময় এক টন জাটকা, পিকআপ ভ্যানসহ আটক করা হয় ওই দুজনকে।

পিরোজপুর (আঞ্চলিক) : মঠবাড়িয়ার পাঁঠাকাটা গ্রামে ২০ হাজার টাকা অর্থদণ্ডপ্রাপ্ত ইটভাটা মালিকের নাম কবির মল্লিক। গতকাল ইট পোড়ানোর প্রস্তুতিকালে আদালত অভিযান চালিয়ে ভাটাটি বন্ধও করে দেন। আদালত পরিচালনা করেন ইউএনও এস এম ফরিদ উদ্দিন।

এলাকাবাসী জানায়, উপজেলার পাঁঠাকাটা গ্রামের প্রভাবশালী কবির মল্লিক দীর্ঘদিন ধরে বসতবাড়িসংলগ্ন কৃষিজমিতে বড় ভাটা স্থাপন করে ইট পুড়িয়ে আসছিলেন। ভাটার ধোঁয়ায় ১৪টি পরিবারের সমস্যা হচ্ছিল। এ ছাড়া ভাটাসংলগ্ন কৃষিজমি ও গাছপালা নষ্ট হয়ে পরিবেশের বিপর্যয় ঘটে।


মন্তব্য