kalerkantho


আশুলিয়ায় দুর্বৃত্তের ছুরিতে কেয়ারটেকার নিহত

গৃহকর্তা আহত ৩

নিজস্ব প্রতিবেদক, সাভার (ঢাকা)   

১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



আশুলিয়ায় দুর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে কেয়ারটেকার বাবুল হোসেন (৩০) নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় গৃহকর্তা, তাঁর স্ত্রী-সন্তানসহ আহত হয়েছে তিনজন। বুধবার ভোরে আশুলিয়ার বাংলাবাজার এলাকায় মাহাবুবুর রহমান ওরফে মহিউদ্দিনের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। বাবুল হোসেন টাঙ্গাইলের কালিহাতীর সালেঙ্গা গ্রামের সোহরাব হোসেনের ছেলে। আহতরা হলো গৃহকর্তা মাহাবুবুর রহমান (৫০), তাঁর স্ত্রী আসমা বেগম (৪৫) ও তাঁর মেয়ে মেহেরুন্নেছা (১৪)। তাদের মধ্যে আসমা ও মেহেরুন্নেছাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আশুলিয়া থানার এসআই মতিউর রহমান শরীফ জানান, ভোরে এক দুর্বৃত্ত মাহাবুবুর রহমানের বাসার টিন খুলে ঘরের ভেতরে ঢোকে। এ সময় বাসার কেয়ারটেকার বাবুল তাকে ধরার চেষ্টা করলে ওই দুর্বৃত্ত বাবুলকে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে। তাঁর চিৎকার শুনে বাসার অন্য সদস্যরা এগিয়ে গেলে ওই দুর্বৃত্ত মাহবুব, আসমা ও মেহেরুনকে কুপিয়ে পালিয়ে যায়। এ সময় প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে আহতদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে গেলে দায়িত্বরত চিকিৎসক কেয়ারটেকার বাবুল হোসেনকে মৃত ঘোষণা করেন। গুরুতর আহত আসমা ও মেহেরুনকে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

গৃহকর্তা মাহাবুবুর রহমানকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

এদিকে গৃহকর্তা মাহাবুব ওই দুর্বৃত্তকে চিনতে পেরেছেন বলে পুলিশকে জানিয়েছেন। তার নাম রাসেল মিয়া (৩০)। রাসেল তাঁর প্রতিবেশী। পুলিশ রাসেলকে আটক করতে না পারলেও তার বাবা ও মাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে। অভিযুক্ত রাসেলকে আটকের চেষ্টা চলছে বলেও জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

বাবুল গৃহকর্ত্রী আসমা বেগমের নিকটাত্মীয়। তিনি বাড়িতে থেকে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত গৃহকর্তা মাহাবুবুর রহমানের দেখাশোনাসহ বাড়ির কেয়ারটেকারের দায়িত্ব পালন করতেন।

আশুলিয়া থানার ডিউটি অফিসার লোকমান হোসেন বলেন, এটা ডাকাতির ঘটনা নয়। জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে পূর্বপরিকল্পিতভাবে এ হত্যাকাণ্ড হতে পারে।

 

ধামরাইয়ে গণপিটুনিতে চোর নিহত

এদিকে ঢাকার ধামরাইয়ে চোর সন্দেহে এলাকাবাসীর পিটুনিতে এক ব্যক্তি (৩৫) নিহত হয়েছে। প্রাথমিকভাবে তার পরিচয় নিশ্চিত করতে পারেনি পুলিশ। বুধবার ভোরে কালামপুর ইউনিয়নের চরডাউটিয়া এলাকার সাইদুল ইসলামের দোকানে চুরির ঘটনার পর সেখানে এ ঘটনা ঘটে। ধামরাই থানার পরিদর্শক (তদন্ত) দীপক চন্দ্র সাহা বলেন, গভীর রাতে ওই এলাকার সাইদুল ইসলামের মুদি দোকানে চুরি করতে যায় ওই ব্যক্তি। এ সময় স্থানীয়রা তাকে হাতেনাতে ধরে পিটুনি দিলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।


মন্তব্য