kalerkantho


কালিয়াকৈরে শ্রমিক ছাঁটাই

পোশাক কারখানায় বিক্ষোভ

কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি   

১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



গাজীপুরের কালিয়াকৈরের বাড়ইপাড়া এলাকার হেসং বিডি লিমিটেড নামের তৈরি পোশাক কারখানার শ্রমিকরা কারখানার সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করছে। বিনা নোটিশে ১৬৯১ জন শ্রমিক ছাঁটাইয়ের প্রতিবাদে গতকাল সোমবার সকাল থেকে সন্ধ্যায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত কারখানার মূল ফটকের সামনে তারা অবস্থান করছিল।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কারখানায় বিপুলসংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

শিল্প পুলিশ, শ্রমিক ও কারখানা সূত্রে জানা যায়, ওই কারখানার শ্রমিকদের জানুয়ারির বকেয়া বেতন গত বৃহস্পতিবার পরিশোধ করা হয়। পরে গত রবিবার সকালে কারখানায় ঢুকতে গেলে নিরাপত্তাকর্মীরা শ্রমিকদের বাধা দেয়। এ সময় কারখানার মূল ফটকে শ্রমিক ছাঁটাইয়ের নোটিশ দেখতে পায় শ্রমিকরা। নোটিশে ১৬৯১ জন শ্রমিককে ছাঁটাই করা হয়েছে। এ ঘটনায় শ্রমিকরা ক্ষোভে ফেটে পড়ে। এ সময় শ্রমিকদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে গতকাল সোমবার সকাল ১১টার দিকে কারখানা কর্তৃপক্ষ তাদের পাওনাদি পরিশোধের ব্যাপারে আশ্বস্ত করে।

সে অনুযায়ী গতকাল সোমবার সকালে শ্রমিকরা কারখানায় তাদের পাওনাদি নিতে এলে কারখানা কর্তৃপক্ষ প্রথমে গড়িমসি করে। একপর্যায়ে ২০০৬ সালের শ্রম আইন অনুযায়ী শ্রমিকদের পাওনাদি পরিশোধ করা হবে বলে জানায়।

কিন্তু শ্রমিকরা তা মানতে অস্বীকার করে কারখানার মূল ফটকে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করতে থাকে। পরে কারখানা কর্তৃপক্ষ শিল্প পুলিশকে খবর দেয়। শিল্প পুলিশ দুই পক্ষের সঙ্গে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা চালায়। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত কোনো সমাধান না হওয়ায় শ্রমিকরা কারখানার সামনে অবস্থান করছিল।

হেসং বিডি লিমিটেডের জেনারেল ম্যানেজার (অ্যাডমিন) দুলাল চন্দ্র বলেন, কারখানার উৎপাদন কমে যাওয়ায় ১৬৯১ জন শ্রমিককে ছাঁটাই করা হয়েছে। তাদের সব পাওনা দিতে চাইলেও তারা নিচ্ছে না। এ নিয়ে শ্রমিকরা কারখানার সামনে বিশৃঙ্খলা করছে।

গাজীপুর শিল্প পুলিশের ওসি মো. শহীদুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, বিনা নোটিশে শ্রমিকদের ছাঁটাই করা হয়েছে। এর প্রতিবাদে শ্রমিকরা বিক্ষোভ করে। এ ছাড়া শ্রমিকদের পাওনাদি নিয়ে শ্রমিক-মালিক-পুলিশ বৈঠক হয়েছে। দ্রুত বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা চলছে।

অপহূত শিশু উদ্ধার, অপহরণকারী গ্রেপ্তার

এদিকে কালিয়াকৈরে অপহরণের পর শিহাব (৫) নামের এক শিশুকে উদ্ধার করেছে কালিয়াকৈর থানার পুলিশ। সোমবার সকালে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার তেলিনা এলাকা থেকে ওই শিশুকে উদ্ধার করা হয়। এ সময় অপহরণকারী ফারুক মীরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অপহরণকারী ফারুক মীর টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার দুদু মীরের ছেলে। উদ্ধার করা শিশু শিহাব গাজীপুরের কালিয়াকৈরের উত্তর কাঞ্চনপুর এলাকার আকবর আলীর ছেলে। অপহূত শিশুর পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, কালিয়াকৈরের উত্তর কাঞ্চনপুর এলাকার আকবর আলীর পাঁচ বছরের শিশু শিহাব গত ১১ জানুয়ারি সন্ধ্যায় বাড়ির উঠানে খেলা করছিল। এ সময় শিহাবের মা শিল্পী বেগম নিজ ঘরের ভেতর কাজ করছিলেন। বাড়িতে অন্য লোকের উপস্থিতি না থাকার সুযোগে ফারুক মীর শিহাবকে অপহরণ করে। পথিমধ্যে বিষয়টি দেখতে পেয়ে প্রতিবেশী ইউসুফ আলী শিহাবকে নিয়ে যেতে বাধা দেন। এ সময় ফারুক মীর নামের ওই ব্যক্তি ইউসুফকে খুন করার হুমকি দিয়ে শিহাবকে নিয়ে চলে যায়। পরে বিষয়টি জানার পর শিহাবের মা-বাবা ছেলেকে খুঁজতে থাকেন। অনেক খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে পরদিন শিহাবের বাবা আকবর আলী বাদী হয়ে এ ঘটনায় কালিয়াকৈর থানায় একটি অভিযোগ করেন।


মন্তব্য