kalerkantho


চুরির অভিযোগে নাগরপুরে দুই শিশুকে নির্যাতন

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি   

১২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



টাঙ্গাইলের নাগরপুরে মোবাইল চুরির অভিযোগে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান দুই শিশুকে নির্যাতন করেছেন। শুক্রবার বিকেলে উপজেলার কলমাইদ বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নাগরপুরের কলমাইদ গ্রামের কাঠ ব্যবসায়ী খোকন মিয়ার একটি মোবাইল ফোনসেট সম্প্রতি হারিয়ে যায়। একই গ্রামের শাজাহান মিয়ার ছেলে মারুফ হোসেন (১৪) ও হযরত আলীর ছেলে শাহীন মিয়ার (১২) বিরুদ্ধে ওই মোবাইল ফোনসেট চুরির অভিযোগ ওঠে। পরে শিশু দুটিকে আটক করে শুক্রবার বিকেলে কলমাইদ বাজারে এক সালিস বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। মামুদনগর ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন ওই বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন। একপর্যায় তিনি নিজেই মারুফ ও শাহীনকে বেত্রাঘাত করেন।

নির্যাতনের শিকার মারুফের বাবা শাজাহান মিয়া জানান, ব্যবসায়ী খোকনের সঙ্গে তাঁদের পূর্বশত্রুতা রয়েছে। তাঁর মোবাইল ফোনসেট হারিয়ে গেলে সেই শত্রুতার জেরে তাঁর ছেলে ও ছেলের বন্ধুকে চুরির অপবাদ দেওয়া হয়। পরে সালিসে ইউপি চেয়ারম্যান তাদের মারধর করেন।

এ ব্যাপারে মামুদনগর ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন বলেন, ওই শিশু দুটি আগেও কয়েকবার চুরি করেছে।

ওদের পরিবারের অনেকেই চোর। তাদের কারো কারো নামে মামলাও আছে।


মন্তব্য