kalerkantho


চট্টগ্রামে প্রজন্ম লীগের নেতা খুন

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   

১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



চট্টগ্রামের পটিয়ায় ছুরিকাঘাতে মো. বাহাদুর (৩০) নামের এক ঠিকাদারের মৃত্যু হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার কোলাগাঁও হায়দার আলী জামে মসজিদের পাশে এ ঘটনা ঘটে। বাহাদুর আওয়ামী প্রজন্ম লীগ কোলাগাঁও ইউনিয়ন শাখার সভাপতি। ধারণা করা হচ্ছে, ঠিকাদারি নিয়ে বিরোধের জের ধরে তাঁকে হত্যা করা হয়েছে।

পটিয়া থানার ওসি শেখ নেয়ামত উল্লাহ বলেন, ‘আমি যতটুকু জেনেছি, পূর্বশক্রতার জের ধরে এ ঘটনা ঘটেছে। তবে যারাই জড়িত হোক না কেন, আইনের আওতায় আনা হবে। ’ বাহাদুর কোলাগাঁও ২ নম্বর ওয়ার্ডের বকশি মিয়া মেম্বার বাড়ির মরহুম রফিক আহমদের ছেলে। নিহতের ভগ্নিপতি মোক্তার আহমেদ দাবি করেন, বাহাদুর চিটাগাং মেরিন ডক প্রতিষ্ঠানে ঠিকাদারি করতেন। গত বৃহস্পতিবার রাতে মেরিন ডক থেকে বিল নিয়ে ফেরার পথে চার-পাঁচজন মুখোশধারী ছুরিকাঘাতে বাহাদুরকে খুন করে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, প্রায় আট মাস আগে ঠিকাদারি নিয়ে বাহাদুরের সঙ্গে স্থানীয় এক যুবকের বিরোধ হয়। এই নিয়ে থানায় পাল্টাপাল্টি অভিযোগ করা হয়।

পরে তা নিষ্পত্তি হলেও বিরোধ থামেনি। এর মধ্যে বৃহস্পতিবার বাহাদুর নিহত হন।

ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. হারুন বলেন, ‘স্থানীয় এক যুবকের সঙ্গে বিরোধ চলে আসছিল, এটা ঠিক। তবে এ হত্যাকাণ্ডে যারাই জড়িত থাক না কেন, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে। ’

স্থানীয় ইউপি সদস্য আজিজুল হক বলেন, ‘কোলাগাঁও শিল্প এলাকা হওয়ার পর থেকে এখানে আধিপত্য নিয়ে বিরোধ নতুন কোনো ঘটনা নয়। ’

আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে সন্তোষ : চট্টগ্রামের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রীর একান্ত সচিব (অতিরিক্ত সচিব) সাজ্জাদুল হাসান। জেলার উন্নয়ন কার্যক্রম ও আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে গতকাল শুক্রবার বিকেল ৫টায় নগরের সার্কিট হাউসে অনুষ্ঠিত এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ সন্তোষ প্রকাশ করেন।

সভায় সাজ্জাদুল হাসান জেলার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি এবং বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ড পর্যালোচনা করেছেন বলে জানা গেছে। চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মো. সামসুল আরেফিনের সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন জেলা পুলিশ সুপার নুরে আলম মিনাসহ বিভিন্ন বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।


মন্তব্য