kalerkantho


নাটোরে কিডনি চুরি

তদন্ত কমিটির কাজ শুরু

নাটোর প্রতিনিধি   

৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



নাটোরে রোগীর কিডনি চুরির অভিযোগে অভিযুক্ত চিকিৎসক ও হাসপাতালের বিরুদ্ধে তিন সদস্যের কমিটি তদন্তকাজ শুরু করেছে। গতকাল মঙ্গলবার সকাল থেকে তারা তদন্ত শুরু করে। এর আগে নাটোর সদর হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের সিনিয়র কনসালট্যান্ট এ কে এম গোলাম কিবরিয়াকে প্রধান করে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

এদিকে সিংড়া উপজেলার ছোট চৌগ্রামের রোগী আসমা বেগমের স্বামী ফজলু বিশ্বাস বলেন, ‘মামলা না করতে হাসপাতাল ও চিকিৎসকের পক্ষ থেকে আমাদের বিভিন্নভাবে হুমকি-ধমকি দেওয়া হচ্ছে। নিরাপত্তার কারণে আমরা মামলা করতে পারছি না। তা ছাড়া বিষয়টি মীমাংসা করতে জোর তদবির করছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।’

আসমা বেগমের পরিবার জানায়, নাটোরের বেসরকারি জনসেবা হাসপাতালে আসমা বেগমের কিডনির পাথর অপারেশন করেন রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সহকারী অধ্যাপক ডা. এম এ হান্নান। অপারেশনের পর রোগী অসুস্থ হয়ে পড়েন। সমপ্রতি আবার ওই হাসপাতালে রোগীর পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হলে ডান পাশের একটি কিডনি না থাকার বিষয়টি ধরা পড়ে। এ ঘটনায় গত ৩ ফেব্রুয়ারি ভুক্তভোগীরা অভিযোগ দিলে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য জনসেবা হাসপাতাল থেকে ডা. এম এ হান্নানক আটক করে। পরে ঘটনা তদন্তে সিভিল সার্জন আজিজুল ইসলাম তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি করেন।



মন্তব্য