kalerkantho


নাটোরে কিডনি চুরি

তদন্ত কমিটির কাজ শুরু

নাটোর প্রতিনিধি   

৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



নাটোরে রোগীর কিডনি চুরির অভিযোগে অভিযুক্ত চিকিৎসক ও হাসপাতালের বিরুদ্ধে তিন সদস্যের কমিটি তদন্তকাজ শুরু করেছে। গতকাল মঙ্গলবার সকাল থেকে তারা তদন্ত শুরু করে। এর আগে নাটোর সদর হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের সিনিয়র কনসালট্যান্ট এ কে এম গোলাম কিবরিয়াকে প্রধান করে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

এদিকে সিংড়া উপজেলার ছোট চৌগ্রামের রোগী আসমা বেগমের স্বামী ফজলু বিশ্বাস বলেন, ‘মামলা না করতে হাসপাতাল ও চিকিৎসকের পক্ষ থেকে আমাদের বিভিন্নভাবে হুমকি-ধমকি দেওয়া হচ্ছে। নিরাপত্তার কারণে আমরা মামলা করতে পারছি না। তা ছাড়া বিষয়টি মীমাংসা করতে জোর তদবির করছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। ’

আসমা বেগমের পরিবার জানায়, নাটোরের বেসরকারি জনসেবা হাসপাতালে আসমা বেগমের কিডনির পাথর অপারেশন করেন রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সহকারী অধ্যাপক ডা. এম এ হান্নান। অপারেশনের পর রোগী অসুস্থ হয়ে পড়েন। সমপ্রতি আবার ওই হাসপাতালে রোগীর পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হলে ডান পাশের একটি কিডনি না থাকার বিষয়টি ধরা পড়ে। এ ঘটনায় গত ৩ ফেব্রুয়ারি ভুক্তভোগীরা অভিযোগ দিলে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য জনসেবা হাসপাতাল থেকে ডা. এম এ হান্নানক আটক করে। পরে ঘটনা তদন্তে সিভিল সার্জন আজিজুল ইসলাম তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি করেন।


মন্তব্য